বিএনপি টিকে আছে, এতেই সন্তুষ্ট নেতারা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২, ২০২১; সময়: ৪:০২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ৪৩ বছর পার করলো বিএনপি। এর মাধ্যমে দলটির অর্জন, সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন দলের নেতারা। চার দশক পার করা দলটির নেতাকর্মীদের অনেকে বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের নানা হিসাব-নিকাশে বিএনপির ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগে পড়েছেন।

এক যুগের বেশি সময় ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি সামনের দিনগুলোতে ক্ষমতায় আসবে- এমন আকাশ-কুসুম সম্ভাবনা দেখছেন না দলের সিনিয়র নেতারা। বরং দলের চেয়ারপার্সন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ছাড়াই দলটি টিকে আছে, এখনো ভাঙন ধরেনি। এতেই সন্তুষ্ট বিএনপির নেতারা।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকায় নেতাকর্মীরা হতাশ। অনেকেই দল ছাড়ছেন। দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে রাজনীতি থেকে এক রকম নির্বাসনেই আছেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত হয়ে লন্ডন পলাতক। বিএনপি কার্যত এখন অভিভাবকহীন। এ অবস্থায় দল যে টিকে আছে, এতেই সন্তুষ্ট নেতারা।

বিএনপির নেতারা মনে করেন, দলটি আগামী দিনে প্রাসঙ্গিকতা ধরে রাখতে পারবে কিনা, সেটিই বড় প্রশ্ন। কারণ বিএনপির কিছুটা হলেও জনসমর্থন এখনো অবশিষ্ট রয়েছে, কিন্তু সেটাকে ক্ষমতাসীনদের বিকল্প শক্তি হিসেবে হাজির করার জন্য যে পরিকল্পনা, প্রস্তুতি ও দূরদর্শী নেতৃত্বসহ প্রাসঙ্গিক অন্যান্য শর্তগুলো পূরণ করা দরকার, সেখান থেকে বিএনপি এখনো অনেক দূরে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, খারাপ সময় সব দলেরই আসে। কিন্তু রাজনৈতিক দলের মূল উদ্দেশ্য ক্ষমতায় যাওয়া। বিএনপির নেতারা যে টিকে থাকা নিয়ে খুশি, এর মূল কারণ হচ্ছে, এছাড়া তাদের হাতে আর কোনো উপায় নেই। ক্ষমতায় যেতে হলে আন্দোলন করতে হবে। আর আন্দোলন করতে হলে নেতা লাগে, জনগণের সমর্থন লাগে। যার একটিও বর্তমানে বিএনপির নেই। যে দলের শীর্ষ নেতারা দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি, জনগণ কেন তাদের কথায় রাজপথে নামবে?

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের সিনিয়র এক নেতা বলেন, এতদিন ক্ষমতার বাইরে থাকলে যেকোনো দলেই কিছু প্রভাব পড়ে। লাভ ছাড়া কে-ই বা এতদিন হাল ধরে থাকতে পারে। বিএনপির বড় সাফল্য হচ্ছে, বিএনপি খুব একটা ভাঙেনি। আমরা ক্ষমতায় যাওয়ার চিন্তা করছি না। আপাতত টিকে থাকাটাই বড় ব্যাপার।

  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে