ফটোশপ করে আওয়ামী লীগ নেতা দর্জি মনির!

প্রকাশিত: আগস্ট ২, ২০২১; সময়: ১০:০৩ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সজীব ওয়াজেদ জয়সহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের প্রায় সবার সাথেই আছে তার ছবি। কিন্তু, বেশিরভাগ ছবিই ভূয়া।

ছবি এডিট করে আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে চলা এই ব্যক্তি মনির খান ওরফে দর্জি মনির। তার বিরুদ্ধে রয়েছে চাঁদাবাজির অভিযোগ। রোববার রাতে রাজধানীর হাজারীবাগ থেকে তাকে আটকের কথা জানা গেলেও, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে সে সম্পর্কে কিছু জানায়নি।

রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কাছাকাছি সব সময় থাকেন তিনি। এমনকি এসএসএফ ঘিরে থাকা অবস্থাতেও যেখানে কেন্দ্রীয় নেতারা থাকেন না, সেখানেও দেখা যায় মনির খান নামের এক ব্যক্তির অবস্থান।

আবার কখনো প্রধানমন্ত্রী তার কাছ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা নিচ্ছেন। এমনকি সজিব ওয়াজেদ জয়ের অনুষ্ঠানে তিনি তার ঠিক পেছনে দাঁড়িয়ে সবার উদ্দেশ্যে হাত নাড়েন জাতীয় নেতাদের মতো করেই।

এসব ছবিগুলো দেখলে তাই মনে হবে। কিন্তু বাস্তবতা হলো সবগুলোই ফটোশপের কারসাজি। তবে মনির খানের দাবি ছবিগুলোতে তিনি সত্যি সত্যি প্রধানমন্ত্রী এবং সজিব ওয়াজেদের পাশে ছিলেন।

মনির খানের মুখে নিয়মিত গল্প- আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে তার ওঠাবসা। নিজেকে গার্মেন্টস ব্যবসায়ীও পরিচয় দেন তিনি। মূলত এক সময় দর্জির কাজ করা মনির খান কামারাঙ্গিরচরে দর্জি মনির হিসেবে বেশি পরিচিত।

শেখ হাসিনা পরিষদ নামের একটি নাম সর্বস্ব সংগঠনের প্রধান তিনি। সেই সংগঠন চালাতে এবং পদ দিতে চাঁদাবাজির অভিযোগও রয়েছে মনিরের বিরুদ্ধে।

শুধু তাই নয়, তিনি নিজেকে আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক উপকমিটির সদস্য হিসাবেও পরিচয় দিতেন। অথচ যে উপকমিটির সদস্য পরিচয় দিতেন, সেই উপকমিটি এখনো গঠিতই হয়নি। তাকে চেনেনও না কেন্দ্রীয় কমিটির সংশ্লিষ্ট সম্পাদকও।

মনির খানের এ ধরনের কর্মকান্ড নিয়ে ক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। নেতারা বলছেন, দল বা বঙ্গবন্ধু পরিবারের নাম ভাঙালে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। আওয়ামী লীগের ত্যাগী কর্মীদেরও দাবি ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে এখনই নেয়া হোক কঠোর পদক্ষেপ।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে