মার খেয়ে দুই ঘণ্টা পর ঢাবিতে শো ডাউন ছাত্রদলের

প্রকাশিত: জুন ১, ২০২১; সময়: ৭:২৬ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ওপর হামলা করেছে ছাত্রলীগ। হামলায় ছাত্রদলের ২৫ জন নেতা কর্মী আহত হয়েছেন বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে পরে ক্যাম্পাসে শোডাউন করে ছাত্রদল। তবে হামলার ঘটনায় একে অপরকে দোষারোপ করছে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগ।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম মৃত্যুবাষির্কীর পূর্বঘোষিত কর্মসূচি পালন করার জন্য মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তন-টিএসসিতে জড়ো হন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতিসহ কয়েকজন নেতাকর্মী।

এ সময় অতর্কিতে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা করে ছাত্রলীগ। ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনসহ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতাকে মারধর করা হয়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে টিএসসি থেকে দৌড়ে পালায় ছাত্রদল। ঘটনার পর টিএসসিতে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ। তারা ক্যাম্পাসে মটর সাইকেলের মহড়া দেয়।

দুপুর দুইটার দিকে কয়েকশো নেতা কর্মী নিয়ে শহীদ মিনার থেকে টিএসসি পর্যন্ত শোডাউন করে ছাত্রদল। পরে টিএসসিতে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে হামলার প্রতিবাদ জানায় ছাত্রদল।

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, ছাত্রলীগের বহিরাগত নেতাকর্মী যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র না এমন সন্ত্রাসীদের নিয়ে এসে তারা আমাদের উপর হামলা করেছে।

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, ছাত্রলীগের দুইশ থেকে আড়াইশ নেতাকর্মী আমাদের উপর অতর্কিতভাবে হামলা করেছে। আমাদের কমিটি দেয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনবার তারা হামলা করেছে।

ছাত্রলীগ হামলার দায় অস্বীকার করে জানায়, ছাত্রদলের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে নিজেরা মারামারি করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন বলেন, অবৈধ সামরিক স্বৈরশাসক জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবাষির্কীকে কেন্দ্র করে তারা এক ধরনের সন্ত্রাসের প্রদর্শনী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মঞ্চস্থ করেছে। আমরা প্রত্যাশা করি শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ বজায় রাখার স্বার্থে তারা এ ধরনের কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকবে। ছাত্রদলের শো ডাউনের সময় মধুর ক্যান্টিনে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ। সূত্র: ডিবিসি টিভি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে