রাজশাহীতে এমপির বিরুদ্ধে নির্বাচন আচারণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২১; সময়: ৩:২৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে আচারণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের এমপি আয়েন উদ্দিনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছেন বিএনপির প্রার্থী।

তার অভিযোগ, এমপি কেশরহাট নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে আচারণ বিধি লঙ্ঘন করে নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছেন। একই সঙ্গে উন্নয়ন কর্মকান্ডের উদ্বোধন ও শীতবস্ত করেন এবং নৌকায় ভোট চান। বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এসব অভিযোগ করেন বিএনপির প্রার্থী প্রভাষক খুশবর রহমান।

চলতি মাসের ৩০ তারিখ রাজশাহীর কেশরহাট পৌরসভার নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী প্রভাষক খুশবর রহমান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। সংবাদ সম্মেলনে তার পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন।

তিনি বলেন, নির্বাচন চলাকালীন সময়ে কোন সংসদ সদস্য নির্বাচনী এলাকায় প্রবেশ করতে পারবেন না। তিনি কোনভাবেই দলীয় ব্যক্তি তথা কারো হয়ে নির্বাচনী প্রচারণা করতে পারবেনা। কিন্তু এমপি আয়েন উদ্দিন নির্বাচনী আইন ও আচরণ বিধি ভঙ্গ করে দলীয় প্রার্থীকে নিয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। যা নির্বচানী আচরণ বিধির চরম লঙ্ঘন হয়েছে। এ নিয়ে গত ১৭ জানুয়ারি সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার, রাজশাহী ও রিটার্নিং অফিসার কেশরহাট পৌরসভা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করলেও এর কোন প্রকার ব্যবস্থা নেননি তিনি।

লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করা হয়, ১৭ জানুয়ারী দুপুর ১২টায় সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন সাঁকোয়া-বাকশৈল কামিল মাদ্রাসা চত্বরে অনুষ্ঠানে মোহনপুর মডেল মসজিদ ও ইসলামীক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এ সময় তিনি দলীয় প্রার্থী শহিদুজ্জামান শহিদকে ভোট দেয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানান। সেইসাথে সেখানে শহিদের পক্ষে ৫০০ কম্বল ও চাদর বিতরণ করেন। এছাড়া বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় তিনি নির্বাচনী প্রচারণা করবেন বলে ঘোষণা দেন। যাহা সম্পূর্ণভাবে তিনি নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করেছেন।

এছাড়া সংসদ সদস্য যেন আর নির্বাচনী প্রচারণায় না নামে, ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি এবং ভোটার যাতে ভোট কেন্দ্রে নির্বিঘ্নে যেতে পারেন তার ব্যবস্থা, বিএনপির পোলিং এজেন্টরা যেন নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে পারেন তার ব্যবস্থা, সেইসাথে আচরণ বিধি লংঘনের জন্য সরকার দলীয় প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল করার দাবী জানানো হয়। সেইসাথে কেন্দ্রেই ফলাফল ঘোষনা এবং হেলমেট বাহিণীকে নির্মুল করার দাবী জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

কামরুজ্জামান হেনার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি ও রাসিকের সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, রাজশাহী জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদ, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম মার্শাল, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব বিশ্বনাথ সরকার, সদস্য ও জেলার সাবেক সভাপতি এ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন তপু।

সম্মেলন পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান আহবায়ত কমিটির সদস্য গোলাম মোস্তফা মামুন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কেশরহাট সাবেক মেয়র আলাউদ্দিন আলো, বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন উজ্জল, মোহনপুর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মাহবুব অর রশিদ, সদস্য সচিব বাচ্চু রহমান, কেশরহাট পৌর সদস্য সচিব নিজামুল হক, ধুরইল ইউপি চেয়ারম্যান কামিজ উদ্দিন, কেশরহাট পৌর যুবদলের আহ্বায়ক শাহীন আলা, যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান ও জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহারিয়ার আলম বিপুল প্রমূখ।

  • 200
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে