ফাঁকা রেস্তোরাঁয় বসে আছে ১০০ পান্ডা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২০, ২০২০; সময়: ১২:৩৫ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ইন্টারনেটের খরচ কমাতে আমরা ফেসবুকের লাইট (হালকা) অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করি। কিছু কিছু মুঠোফোনেরও লাইট সংস্করণ থাকে। করোনাকাল আমাদের আরও এক ‘লাইট’–এর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে—লকডাউন লাইট। জার্মানিতে এখন চলছে ‘লকডাউন লাইট’। জার্মানিতে লকডাউনের এই হালকা সংস্করণের অর্থ হলো রেস্তোরাঁ, বার ও বিনোদনকেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকবে। তবে দোকানপাট ও স্কুল খোলা রাখা যাবে।

গত নভেম্বর থেকে দেশটিতে চলছে সীমিত পরিসরের এই লকডাউন। আর এতে সমস্যায় পড়েছেন স্থানীয় রেস্তোরাঁ আর বার ব্যবসায়ীরা। ব্যতিক্রমী এক প্রতিবাদ শুরু করেছেন তাঁরা। চলমান লকডাউনের প্রতিবাদে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্ট শহরে পিনো নামের একটি রেস্তোরাঁয় খেলনা পান্ডা দিয়ে প্রতিবাদ করেছেন রেস্তোরাঁটির মালিক। প্রায় ১০০টি পান্ডাকে রেস্তোরাঁর খাবার টেবিলে বসিয়ে দিয়েছেন তিনি। নাম দিয়েছেন ‘পান্ডা-মিক পান্ডা’। রেস্তোরাঁজুড়ে ১০০টি পান্ডা টেবিলে বসে আছে। কেউ কেউ যেন আয়েশ করে খেতে বসেছে। কারও আবার সামনে রাখা আছে ‘করোনা বিয়ার’–এর বোতল। রেস্তোরাঁটির ব্যবস্থাপক গুইসেপে ফিচেরার দাবি, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর রেস্তোরাঁয় প্রাণ ফিরিয়ে আনার জন্য তাঁদের এই প্রচেষ্টা।

ফিচেরা বলেন, ‘এটি আমাদের পক্ষ থেকে এক নীরব প্রতিবাদ।’ এই লকডাউন যত দিন চলমান থাকবে, তত দিন যেন পথচারীরা রাস্তা থেকে এই দৃশ্য ‘উপভোগ’ করতে পারেন, তাই দিনভর রেস্তোরাঁর বাতি জ্বালিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। দেশটির সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী বছরের জানুয়ারির ১০ তারিখ পর্যন্ত জার্মানিতে সীমিত সংস্করণের এই লকডাউন চলবে।

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে