এক টিকায় কী বশে আসবে করোনা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৭, ২০২০; সময়: ১১:০১ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের টিকা বাজারে এসেছে এবং মানুষের মধ্যে প্রয়োগ হচ্ছে। প্রশ্ন হচ্ছে- এক টিকায় কি বশে আসবে করোনা? এক বছর আগে চীনে প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হওয়ার পর একাধিক রূপ ধারণ করেছে করোনাভাইরাস।

দেশ ও অঞ্চলভেদে এর রূপ ও তৎপরতা ভিন্ন দেখা গেছে। প্রতি মাসে দুটি করে রূপ ধারণ করতে দেখা গেছে ভাইরাসটিকে। এ পর্যন্ত ২৫ ধরনের রূপ পাওয়া গেছে করোনাভাইরাসের। এ কারণে শঙ্কা দেখা দিয়েছে, এক টিকায় রূপ বদলকারী করোনা কতটুকু নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। বিবিসি।

ভাইরাস সব সময়ই নিজেকে পরিবর্তন করে নতুন রূপ নিতে থাকে। এই প্রক্রিয়াকে বলা হয় ‘মিউটেশন’। নতুন রূপ নেয়া ভাইরাস কখনও আগের ভাইরাসের চেয়ে বেশি ভয়ংকর হয়। কখনও আগের ভাইরাসের চেয়ে দুর্বলও হতে পারে।

সেক্ষেত্রে স্বভাবতই দুটি ভাইরাসের ক্ষতিকর প্রভাব একই হবে না। আবার পরিবর্তিত হওয়ার মধ্য দিয়ে ভাইরাস একেবারে নিষ্ক্রীয়ও হয়ে যেতে পারে। ভাইরাস সাধারণত রূপ পরিবর্তন করে এক মানবদেহ থেকে আরেক দেহে আরও সহজে ছড়ানো, বংশবৃদ্ধি করা বা ওষুধ-টিকার মতো বাধা মোকাবেলা করে টিকে থাকার জন্য।

এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে বিজ্ঞানীরা প্রশ্ন তুলছেন, করোনাভাইরাসের টিকা পরবির্তিত সব রূপের করোনার জন্যই কার্যকর হবে কিনা।

বিজ্ঞানীরা করোনার পরিবর্তিত রূপ নিয়ে আগে থেকেই সতর্ক আছেন। পর্যবেক্ষণ করছে এটি কখন কী রূপ ধারণ করে এবং কী ধরনের প্রতিক্রিয়া দেখায়। এই সতর্ক পর্যবেক্ষণের দুটি কারণ।

প্রথম কারণ যেসব অঞ্চলে প্রাদুর্ভাব ও সংক্রমণ বেশি সেসব অঞ্চলে ভাইরাসের রূপ পরিবর্তনও বেশি। এটি আতঙ্কজনক হলেও দু’ভাবে বিষয়টিকে ব্যাখ্যা করা হয়। একটি ব্যাখ্যা হল ভাইরাসটি দ্রুত রূপ বদলাচ্ছে এবং অনেক সংক্রমণ ঘটাচ্ছে।

দ্বিতীয় ব্যাখ্যা হল- রূপ পরিবর্তনের মাধ্যমে এটি সঠিক সময়ে সঠিক ব্যক্তিকে সংক্রমিত করে। যেমন করোনার স্প্যানিশ রূপ এই গ্রীষ্মে ছুটি কাটানো মানুষকে সংক্রমিত করেছে। তবে এটি তুলনামূলক ভালো নাকি খারাপ তা ব্যাখ্যা সাপেক্ষ। করোনার রূপ বদলের দিকে বিজ্ঞানীদের তাকিয়ে থাকার দ্বিতীয় কারণ কীভাবে এটি রূপ বদলায় তা ধরতে পারা।

কোভিড-১৯ জোনোমিক ইউকের প্রফেসর নিক লোমান বলেন, বিস্ময়করভাবে এর অনেকগুলো রূপ পাওয়া গেছে। কিছু রূপ আগ্রহোদ্দীপক। বার্মিংহাম ইউনিভার্সিটির প্রফেসর অ্যালান ম্যাকনেলি বলেন, আমরা জানি করোনার অনেকগুলো রূপ আছে।

তবে এর বায়োলজিক্যাল অর্থ কী আমরা জানি না। এই রূপ বদলের প্রভাব সম্পর্কে দ্রুত কিছু বলা যাচ্ছে না। করোনার তিনটি টিকা এসেছে- ফাইজার, মডার্না ও অক্সফোর্ডের টিকা। এই তিনটিই সব পরিবর্তিত রূপের আক্রমণকারী মুখকে প্রতিরোধ করতে পারবে।

তারপরও সব ধরনের পরিবর্তিত রূপের করোনায় টিকা কার্যকর হবে কিনা এবং কোন টিকাটি কতটুকু কার্যকর তা নিশ্চিত হতে সময় লাগবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে