গণিত আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে নাটোরের মেয়ে অমি’র সাফল্য

প্রকাশিত: ২০-০৪-২০২১, সময়: ১৬:০৪ |
খবর > সাফল্য
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : গণিত আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে প্রথমবার অংশ গ্রহণ করে নাটোরের মেয়ে রায়ান বিনতে মোস্তফা অমি সাফল্য দেখিয়েছে। নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী রায়ান বিনতে মোস্তফা অমি ৮ পয়েন্ট পেয়ে জয় করেছে একটি ব্রোঞ্জপদক। এই প্রতিযোগীতায় বাংলাদেশের অপর প্রতিযোগী ঢাকা ভিকারুননেসা নুন স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্রী নুজহাত আহমেদ দিশাও রৌপ্য পদক পেয়ে সাফল্য দেখিয়েছেন।

ইউরোপিয়ান গার্লস ম্যাথ অলিম্পিয়াড (ইজিএমও) ২০২১-এ বাংলাদেশের মেয়েরা রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করেছে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ এই প্রথম। গত রবি ও সোমবার পৃথিবীর ৫৫টি দেশের ২১৩ জন প্রতিযোগী করোনার কারণে অনলাইনে এই প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করে। ২০১২ সাল থেকে ইজিএমও প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে বিভিন্ন দেশে।

ইউরোপিয়ান গার্লস ম্যাথ অলিম্পিয়াড সূত্রে জানা গেছে. প্রথমবার অংশগ্রহণেই বাংলাদেশের প্রতিযোগী ঢাকা ভিকারুননেসা নুন স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্রী নুজহাত আহমেদ দিশা ১৫ পয়েন্ট পেয়ে অর্জন করেছে রৌপ্যপদক । আর নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী রায়ান বিনতে মোস্তফা অমি ৮ পয়েন্ট পেয়ে জয় করেছে একটি ব্রোঞ্জপদক। এছাড়া এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়ে দেশের অপর দুই প্রতিযোগী আরিফা আলম ও সাফা তাসনিমও ভালো নম্বর পেয়েছে। বাংলাদেশ দলের সর্বমোট পয়েন্ট ২৭। দলগত স্কোরে বাংলাদেশ দল ভারত, নেদারল্যান্ডসের মতো অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে।

এই বিজয়ে রায়ান বিনতে মোস্তফা অমির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও তার মা তহমিনা খাতুনের কর্মস্থল নাটোর সিটি কলেজের সকল শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা অমিকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এদিকে প্রায় একমাসের বেশি সময় ধরে অনেকগুলি ক্লাস, পরীক্ষার মাধ্যমে এই ইভেন্টটাকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সুন্দরভাবে কো-অর্ডিনেট করার জন্য বিজয়ী রায়ান বিনতে মোস্তফা অমি বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের ইপ্সিতা বহ্নি, আহমেদ জাওয়াদ চৌধুরি, সাদ বিন কুদ্দুস ও মাহবুব মজুমদারসহ সকল মেন্টরদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

নাটোরের জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, এটা আমাদের দেশের জন্য অত্যন্ত গৌরবের এবং আনন্দের একটা ব্যাপার! বিশ্বের এতগুলি দেশের গণিতে সবচেয়ে পারদর্শী মেয়েদের সাথে প্রতিযোগীতায় আমাদের মেয়েরা এত ভালো করেছে। প্রথমবারই এত ভালো ফলাফলের জন্য সবাইকে অভিনন্দন।

  • 36
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a comment

উপরে