লুডু খেলায় বাবার প্রতারণা, আদালতে নালিশ কন্যার

প্রকাশিত: ২৮-০৯-২০২০, সময়: ১৮:৪৯ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : লুডু খেলায় গুটি চালাচালি নিয়ে কতই তো ঠাট্টা করি আমরা। কখনো হয়তো প্রতিপক্ষের আড়ালেই বোর্ডে ঘুঁটি তুলে দেই কিংবা এগিয়ে দেই কয়েক ঘর। কিন্তু এই চুরি আর প্রতারণা নিয়ে নিশ্চয়ই আদালতে নালিশ জানাতে যাই না আমরা, তাই না?

কিন্তু ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে এক ২৪ বছর বয়সী মেয়ে তা মানতে রাজি নন। ছুটেছেন আদালতে বাবার বিরুদ্ধে নালিশ জানাতে। শুধু তাই নয়, এই লুডু খেলায় জিততে বাবার প্রতারণাকে কেন্দ্র করে তিনি মানসিকভাবে এতটাই আহত হয়েছেন যে, খেলা শেষে জন্মদাতাকে বাবা বলে ডাকতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি।

কিন্তু সামান্য লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে এমন ক্ষেপে যাবার কি আছে? এই প্রশ্ন করা হলে কন্যাটি জানান যে তিনি তার বাবাকে এতটাই বিশ্বাস করতেন যে বাবার এই প্রতারণা মেনে নিতে পারছেন না।

আর এটা তাকে এতটাই প্রভাবিত করেছে যে পরপর চারদিন মানসিক সুস্থতা বিষয়ক পরামর্শ বা কাউন্সেলিং নিতে হয়েছে তাকে।

ভোপাল রাজ্যের ফ্যামিলি কোর্টের একজন কাউন্সিলর সারিতা বলেন, ‘২৪ বছর বয়সী এক তরুণী কিছুদিন আগে আমার কাছে আসেন। তিনি জানান বাবার সঙ্গে তারা দুই ভাইবোন লুডু খেলছিলেন। এক পর্যায়ে চুরি করে তার বাবা তার একটি গুটি কেটে ফেলেন। যে বাবা পৃথিবীর সমস্ত আনন্দ এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি করেন, তিনি কি করে নিজের মেয়ের সঙ্গে এমন প্রতারণা করতে পারেন- এই চিন্তা তাকে মানসিকভাবে প্রচণ্ড আহত করে।’

‘তরুণীটি জানান যে নিজের বাবার জন্য সমস্ত সম্মান হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। তার মতে- নিজের মেয়েকে খুশি করার জন্য হলেও তার হেরে যাওয়া উচিত ছিল।’

সারিতা আরও জানান, ‘তরুণীটির সঙ্গে আমরা চারটি কাউন্সেলিং সেশন শেষ করেছি। এখন তিনি অনেকটাই স্বাভাবিক। মানসিকভাবে অনেকটাই ইতিবাচক বোধ করছেন তিনি এখন।’

  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে