করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২০৫

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৮, ২০২১; সময়: ৫:৫৭ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে রাজধানীসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ হাজার ৯৭৮ জনে।

একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২০৫ জন। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৭৮৪ জনে। এর আগের দিন শনিবার (২৭শে নভেম্বর) দুইজনের মৃত্যু ও শনাক্ত হয়েছিল ১৫৫ জন।

রবিবার (২৮শে নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি ও বেসরকারি ৮৩৬টি ল্যাবরেটরিতে ১৯ হাজার ৫২৫টি নমুনা সংগ্রহ ও ১৯ হাজার ৮১১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৮ লাখ ৫২ হাজার ৫৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হোন ২৯৯ জন রোগী। এ নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৪০ হাজার ৩১৭ জন। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ৪১ শতাংশ। নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৫২ শতাংশ। প্রতি ১০০ জনে সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ এবং মৃত্যুহার ১ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৩ জনের মধ্যে পঞ্চাশোর্ধ একজন, ষাটোর্ধ্ব একজন এবং ৮০ বছরের বেশি বয়সি একজন মারা গেছেন। মৃত তিনজনের মধ্যে ঢাকায় দুইজন এবং চট্টগ্রামে একজন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম করোনার সংক্রমণ দেখা দেয়। কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ই মার্চ। ওইদিন তিনজন করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে প্রথম মৃত্যুর খবর জানানো হয় একই বছরের ১৮ই মার্চ।

এরপর বিভিন্ন সময় করোনার সংক্রমণ কমবেশি হয়েছে। তবে চলতি বছরের মে মাসের শেষের দিকে দেশে করোনার ডেল্টা ধরনের দাপটে পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে। গত আগস্টের প্রথম দিকে করোনার গণটিকা দেওয়া শুরু হয়। এরপর সংক্রমণ ও মৃত্যু উভয়ই কমতে শুরু করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে