ঢাকা থেকে সব ট্রেন চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত: জুন ২২, ২০২১; সময়: ১১:৩৯ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়তে থাকায় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার পর ঢাকা থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে রেলপথ মন্ত্রণালয়; পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ট্রেন চালু হবে ৩০ জুনের পর।

মঙ্গলবার রাতে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার পর ঢাকা থেকে কোনো যাত্রীবাহী ট্রেন চলবে না এবং ঢাকায়ও কোনো যাত্রীবাহী ট্রেন প্রবেশ করবে না। সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ৩০ জুন মধ্যরাত থেকে এই রুটে ট্রেন চলাচল শুরু করার কথাও জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রী আরও জানান, ঢাকা থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধ থাকলেও চট্টগ্রাম-সিলেট এবং চট্টগ্রাম-চাঁদপুর রুটের ট্রেনগুলো চলবে।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে মহামারীর বিস্তার রোখে কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করা জেলাগুলোর মধ্যে চলাচলকারী পাঁচটি ট্রেন বাতিল এবং খুলনাগামী সব যাত্রীবাহী ট্রেন যশোর পর্যন্ত চলাচল করবে বলে জানিয়েছিল রেলপথ মন্ত্রণালয়।

রেলপথ মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছিল, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ট্রেন চলাচলকারী গাজীপুর, নারায়নগঞ্জ, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ জেলাগুলোতে লকডাউন ঘোষণা করায় ২২ জুন থেকে আগামী ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত গাজীপুর জেলার মধ্যে চলাচলরত তুরাগ এক্সপ্রেস ও কালিয়াকৈর কমিউটার ট্রেন বাতিল করা হয়েছে।

এছাড়া গাজীপুরের মধ্যে অবস্থিত সকল স্টপেজ লকডাউন থাকা পর্যন্ত বাতিল থাকবে এবং আন্ত:নগর ট্রেন থামবে না। গোপালগঞ্জ-রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস, খুলনা-রাজবাড়ীর মধ্যে চলাচলকারী নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস ও রাজবাড়ী-ভাঙ্গা-রাজবাড়ীর মধ্যে চলাচলকারী রাজবাড়ী এক্সপ্রেস বাতিল করা হয়েছে।

এছাড়া খুলনাগামী চলাচলকারী সকল যাত্রীবাহী ট্রেন যশোর পর্যন্ত চলাচল করবে বলে জানিয়েছিল মন্ত্রণালয়। ভাইরাস সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ঢাকা বিভাগের সাত জেলায় আগামী নয় দিন জরুরি পরিষেবা ছাড়া সব ধরনের কার্যক্রম ও চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার।

সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক আদেশে বলা হয়, মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী ও গোপালগঞ্জে এই বিধিনিষেধের আওতায় থাকবে। এই সাত জেলার মধ্যে মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, মাদারীপুর রেল নেটওয়ার্কে নেই।

আদেশে বলা হয়েছে, বিধিনিষেধের সময়ে এই সাত জেলায় সার্বিক কার্যাবলি/চলাচল (জনসাধারণের চলাচলসহ) বন্ধ থাকবে। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, রেলওয়ের ৩৬২টি ট্রেনের মধ্যে স্বাভাবিক সময়ে ১০২টি আন্তঃনগর ট্রেন এবং ২৬০টি লোকাল, কমিউটার ট্রেন ও মালবাহী ট্রেন চলাচল করে।

  • 181
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে