মডেল বানানোর প্রলোভনে আট বছরে পাঁচ শতাধিক নারী পাচার

প্রকাশিত: জুন ১, ২০২১; সময়: ৯:৫৯ pm |
খবর > জাতীয়

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মডের বানানোর প্রলোভনে নারী পাচার চক্রের হোতা বস রাফি’র অন্যতম এজেন্ট টিকটক হৃদয়। আররট বছরে পাঁচ শতাধিত নারীকে পাচার করা হয়েছে বিভিন্ন দেশে। এরমধ্যে বস রাফি পাচার করেছে অর্ধশতাধিক। আর একাজে দেশি বিদেশিসহ ৫০ জনের চক্র জড়িত। সম্প্রতি ভারতের কেরালায় এক বাংলাদেশি তরুণীকে নির্যাতন ও দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনায় নারীপাচার চক্রের হোতা বস রাফি ও ম্যাডাম সহিদাসহ চারজনকে গ্রেপ্তারের পর এসব তথ্য জানিয়েছে র‌্যাব। আর ভারতে গ্রেপ্তার টিকটক হৃদয় এই চক্রের অন্যতম এজেন্ট।

সম্প্রতি ভারতের কেরালায় বাংলাদেশি এক তরুণীকে দলবেঁধে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ঘটনার পর সেদেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেপ্তার হয় বাংলাদেশের কিশোর টিকটক হৃদয় ও দুই নারীসহ মোট ৬ জন। উদ্ধার করা হয় পাচারের শিকার হওয়া নির্যাতিতা তরুণীকে।

ঘটনা নিয়ে তদন্ত শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। খোঁজ মেলে এই চক্রের হোতা ‘বস রাফির’। পরে অভিযান চালিয়ে ঝিনাইদহ থেকে রাফি ও যশোর থেকে তার সহযোগী ম্যাডাম সহিদাসহ চার জন।

র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, টিকটক হৃদয় অনলাইনে তরুণীদের মডেল বানানোর ফাঁদে ফেলতো। পরে তাদের উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখিয়ে বস রাফির মাধ্যমে পাচার করতো।

মূলত তরুণীদের টাকার বিনিময়ে ভারতে নিয়ে জোর করে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করতো চক্রটি। এরপর ব্ল্যাকমেইল করে সীমান্তবর্তী এলাকায় বস রাফির এজেন্টদের সেফ হাউজগুলোতে পতিতার কাজে ব্যবহার করতো।

পাচার হওয়া তরুণীদের অনেকেই মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে অবস্থান করছে। তাদের তালিকা তৈরি করে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে