শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকায় প্রতারকদের নজর, গ্রেপ্তার ৩

প্রকাশিত: মে ৩১, ২০২১; সময়: ১০:১৪ pm |
খবর > জাতীয়

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : এবার প্রাথমিকের এক কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকার প্রতি নজর পড়েছে প্রতারকদের।

ইতোমধ্যে হাজারো ছাত্র-ছাত্রীর মায়ের মোবাইল ব্যাংকিং হিসাব থেকে হাওয়া হয়ে গেছে কয়েক লাখ টাকা। গোয়েন্দা পুলিশ বলছে, জেলায় জেলায় সক্রিয় উপবৃত্তির টাকা আত্মসাত চক্রে রয়েছে বিদ্যালয়ের কর্মচারী ও মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের এজেন্ট।

আগে থেকেই উপবৃত্তি পেয়ে আসছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা। দু’হাজার পনেরো থেকে উপবৃত্তির আওতায় এসেছে সব ছাত্রও। ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস নগদের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের মায়েদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে টাকা।

তবে এবার উপবৃত্তির সুবিধাভোগী এক কোটি চল্লিশ লাখ শিক্ষার্থীর টাকার প্রতি নজর পড়েছে প্রতারকদের। উপবৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীর মায়েদের মোবাইল নম্বর যোগাড় করে শিক্ষা কর্মকর্তা সেজে ফোন করে কৌশলে নগদ অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড জেনে টাকা আত্মসাৎ করছে তারা।

রংপুর ও নরসিংদী থেকে অর্থ আত্মসাতকারী তিনজনকে গ্রেপ্তারের পর গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ জানিয়েছে, উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের প্রক্রিয়ায় জড়িত এজেন্টরাও। এছাড়া, বিদ্যালয়ের কিছু দপ্তরী, নৈশ প্রহরীদেরও দলে ভিড়িয়েছে প্রতারকরা।

সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ জানিয়েছে, উপবৃত্তির টাকা চুরি করতে জেলায় জেলায় গড়ে উঠেছে প্রতারক চক্র।

ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগের (সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম) উপ কমিশনার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম বলেন, অঞ্চল্ভেদে প্রতারণা চক্র আছে। রংপুর অঞ্চলের প্রতারণা চক্র ওই অঞ্চলে তথ্য সংগ্রহ করে প্রতারণা করছে। দেখা গেছে তার লক্ষাধিক টাকার হাতিয়ে নিয়েছে। এ ক্ষেত্রে সার্ভিস প্রোভাইডার যারা আছে তাদের দায় রয়ে যায়।

শিক্ষার্থীদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে, নিজেদের নিরাপত্তা ত্রুটি কাটিয়ে ওঠার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে নগদ।

নগদ লিমিটেড এর চিফ পাবলিক অ্যাফেয়ার্স অফিসার সোলায়মান সুখন বলেন, যারা এটার ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে তাদের আমরা ধরার চেষ্টা করছি। তবে ৯৯.৯৯ শতাংশ সফল একটা প্রজেক্টের ক্ষেত্রে ০ দশমিক ০১ শতাংশের জন্য একে ব্য্ররথ বলতে রাজি নই। আমরা আমাদের দায়বদ্ধতা থেকে যথাযথ ব্যাবস্থা নেয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি।

মোবাইলে আর্থিক লেনদেনে প্রতারণা থেকে বাঁচতে অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড কাউকে না জানানোর পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে