করোনায় যুক্তরাষ্ট্রের ‘ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন’ তালিকায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২১; সময়: ২:১২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : করোনা মহামারিতে বাংলাদেশসহ অন্তত ১১৬টি দেশকে ‘ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন’ তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। সম্প্রতি দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভ্রমণ নির্দেশিকার এই তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য মিলেছে।

তবে কবে নাগাদ হালনাগাদ করা পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করা হবে তা জানানো হয়নি।

এর আগে সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, ভ্রমণে সর্বোচ্চ সতর্কতার তালিকার চতুর্থ পর্যায়ে আনেকগুলো নতুন দেশকে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে, যে কারণে বিশ্বের ৮০ শতাংশ দেশই এখন এই তালিকায় চলে আসবে।

এই তালিকায় যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স, ইসরায়েল, মেক্সিকো, জার্মানিসহ আরও কিছু রাষ্ট্রকে ‘কোভিড-১৯ এর অতি উচ্চ সংক্রমণের’ দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

মঙ্গলবারের আগ পর্যন্ত বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশের মধ্যে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন’ তালিকায় ৩৪টি দেশের নাম ছিল।

এখন ১৫০টিরও বেশি দেশকে চতুর্থ পর্যায়ের ভ্রমণ সতর্কতার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা বিবেচনা করছে তারা।

যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এই পদক্ষেপ বিভিন্ন দেশে মহামারি পরিস্থিতির পুনর্মূল্যায়নের ওপর ভিত্তি করে নেওয়া হয়নি, বরং এটা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভ্রমণ সতর্কতার পরিমার্জনের প্রতিফলন, যা মূলত যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন-এর বিদ্যমান মহামারীর মূল্যায়নের ওপর নির্ভর করে নির্ধারণ করা হয়েছে।

এই পরামর্শ বাধ্যতামূলক নয় এবং এতে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ভ্রমণের ওপর কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে তারা।

‘ভ্রমণে বিরত থাকুন’ তালিকার অন্যান্য দেশের মধ্যে ভারত, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, আফগানিস্তান, ফিনল্যান্ড, মিসর, বেলজিয়াম, তুরস্ক, ইতালি, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড ও স্পেনও আছে।

এছাড়া নেপাল, চীন ও জাপানের মতো কয়েকটি দেশ তৃতীয় পর্যায়ের ‘ভ্রমণ পুনর্বিবেচনা করুন’ তালিকায় রয়েছে। শ্রীলঙ্কা ও ভুটানকে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও প্রথম পর্যায়ের ভ্রমণ সতর্কতার তালিকায় রাখা হয়েছে।

  • 65
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে