৬ শিল্প খাতকে ‘শিশুশ্রম মুক্ত’ ঘোষণা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১; সময়: ৬:৩০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : দেশের ৬টি শিল্প খাতকে ‘শিশুশ্রম মুক্ত’ ঘোষণা করেছে সরকার। খাতগুলো হলো- রেশম, ট্যানারি, সিরামিক, গ্লাস, জাহাজ প্রক্রিয়াজাতকরণ, রপ্তানিমুখী চামড়াজাত দ্রব্য ও পাদুকা শিল্প।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শ্রম ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান এ ঘোষণা দেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, কেরানীগঞ্জে গেঞ্জি সেক্টরে এখনো শিশুদের বড় একটি অংশ কাজ করছে। আমরা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঢাকা জেলা প্রশাসনকে এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে বলব। কেরানীগঞ্জে শিশুশ্রম বন্ধ করতেই হবে।

প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান জানান, গত ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি জাতীয় শিশুশ্রম কল্যাণ পরিষদের সপ্তম সভার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের সুপারিশ বিবেচনা করে বিভিন্ন খাতকে সময় সময় শিশু শ্রমমুক্ত ঘোষণা করার সুপারিশ আসে। পরে তা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২০১৯ সালে ‘জাতীয় মনিটরিং কোর কমিটি’ গঠন করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই ছয়টি শিল্প খাতের মালিকপক্ষ থেকে জানানো হয়, এসব খাতে কোনো শিশু শ্রমিক নেই। সংশ্লিষ্ট খাতের সমিতি থেকে প্রত্যয়ন পাওয়ার পর জাতীয় মনিটরিং কোর কমিটি এই ছয় খাতের বিভিন্ন কারখানা পরিদর্শন করে।

তিনি বলেন, এর আগে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের পরিদর্শকরা কারখানা পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দেয়। আর জাতীয় মনিটরিং কোর কমিটি ছয়টি খাত পরিদর্শন করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে ছয়টি প্রতিবেদন দাখিল করে। জাতীয় কোর কমিটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে- তাদের পরিদর্শনের সময় এই ছয়টি খাতের কারখানার মালিকরা জানিয়েছেন- তাদের কারখানায় কখনও শিশু শ্রমিক নেওয়া হবে না। কোর কমিটিও তাদের পরিদর্শনে কোনো শিশু শ্রমিক সেখানে দেখতে পাননি। তাই আমি এই ছয়টি খাতকে শিশুশ্রম মুক্ত ঘোষণা করছি।

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরে ১০টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে শিশুশ্রম নিরসনের লক্ষ্যে নয়টি কৌশলগত ক্ষেত্র চিহ্নিত করতে দায়িত্ব দেয় সরকার। এর প্রেক্ষিতে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার ওই ছয় শিল্প খাতকে শিশুশ্রম মুক্ত ঘোষণা করল।

  • 13
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে