জাতিসংঘের ভাষণে শেখ হাসিনার পাঁচ দিক-নির্দেশনা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০; সময়: ১১:৩২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : শনিবার বাংলাদেশ সময় ৮টা ১৭ মিনিটে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৫ তম অধিবেশনে ১৭ বারের মতো ভাষণ দেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই ভাষণে তিনি ৫টি বিষয়ে মৌলিক দিক নির্দেশনা দিয়েছেন এবং বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে এই ৫টি বিষয়ে ভাবার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। এই পাঁচটি মৌলিক দিক নির্দেশনার কারণে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণটি একজন বিশ্ব নেতার ভাষণ হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে যে ৫টি মৌলিক দিক নির্দেশনার বিষয়ে বলা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে-

১। ভ্যাকসিন সাম্যতা

করোনা ভাইরাসকে সারা বিশ্বের প্রধান সমস্যা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এই কভিড-১৯ প্রমাণ করেছে আমরা কেউই সুরক্ষিত নই। আমাদের সকলকে সম্মিলিত ভাবেই এই সংকটের মোকাবেলা করতে হবে। তিনি বলেছেন, খুব অচিরেই ভ্যাকসিন আসছে। এই ভ্যাকসিন যাতে একটা বৈশ্বিক সম্পদে পরিণত হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে। এর মাধ্যমে তিনি দরিদ্র্য ও যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশগুলোর পক্ষে তার অবস্থান পুনঃব্যক্ত করেন। ভ্যাকসিন বৈষম্য যাতে সৃষ্টি না হয় সে ব্যাপারে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

২। আর্থিক সংকট

করোনার কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে যে সংকট ও মন্দা দেখা দিয়েছে সে ব্যাপারে অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য আর্থিক সহায়তার উপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সমস্ত দেশগুলো যাতে করোনা মোকাবেলা করতে পারে এজন্য বিশ্ব প্রণোদনার প্রস্তাব দিয়েছেন শেখ হাসিনা।

৩। অভিবাসী শ্রমিক

অভিবাসী শ্রমিকদের বিষয়ে বিশ্ব ঐক্যমতের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন যে, অভিবাসী শ্রমিকরা কভিডের কারণে যে সংকটে পড়েছে তা মোকাবেলার জন্য সারা বিশ্বকে একযোগে কাজ করতে হবে।

৪। শান্তি সংস্কৃতি

সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শান্তি সংস্কৃতির মাধ্যমে বৈশ্বিক উগ্রবাদ ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিহত করার আহ্বান জানান। করোনা সংকটের সময় অসহিষ্ণুতা ও উগ্রবাদ বেড়েছে উল্লেখ করে তিনি শান্তি সংস্কৃতির মাধ্যমে তা প্রতিহত করার ডাক দেন।

৫। রোহিঙ্গা সমস্যা

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৫ তম অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে বিশ্বকে আরও কার্যকর ভূমিকা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পষ্ট করে বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমারের সৃষ্টি এবং তাদেরকেই এর সমাধান করতে হবে।

  • 41
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • কল্যাণপুরে বস্তিতে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৯ ইউনিট
  • আ.লীগের দু’পক্ষের সমাবেশ একই স্থানে, ১৪৪ ধারা জারি
  • ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও ১১ লাখ ব্যারেল তেল জব্দ
  • করোনায় ভারতে আরও ৫৬৩ জনের মৃত্যু
  • ই-পাসপোর্টের দিকে ঝুঁকছে চট্টগ্রাম, সেবা নিশ্চিতে মনিটরিং
  • বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ২
  • বাড়ছে উত্তেজনা, আমিরাতের কাছে ৫০টি এফ-৩৫ বিক্রি করতে চান ট্রাম্প
  • ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন প্রয়োজন : জিএম কাদের
  • দেশে করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর সর্বশেষ তথ্য
  • ফ্রান্সে মহানবীকে কটাক্ষ করার প্রতিবাদে রাজশাহীতে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন
  • ২০২২ সালের আগে স্বাভাবিক জীবন আসছে না : ফসি
  • করোনা থেকে সুস্থ ৩ কোটি ২৯ লাখ
  • নাব্যতা সংকট, আজ বসেনি পদ্মাসেতুর ৩৫তম স্প্যান
  • যুক্তরাষ্ট্রে শীতের সঙ্গে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ
  • ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে মুসলমানদের শুভেচ্ছা জানালেন মোদি
  • উপরে