রাজধানীতেই আক্রান্ত ৭ লক্ষাধিক, দাবি ইকোনমিস্টের

প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২০; সময়: ৯:৪৪ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকাতেই প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সাড়ে সাত লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারে বলে দাবি করেছে ব্রিটেনের প্রভাবশালী সাময়িকী দ্য ইকোনমিস্ট। আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) এর বরাত দিয়ে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এমন দাবি করেছে ব্রিটিশ এই সাময়িকী।

ওই প্রতিবেদনে আরও দাবি করা হয়েছে, বাংলাদেশে সরকারিভাবে করোনায় আক্রান্তের যে সংখ্যা জানানো হচ্ছে প্রকৃত সংখ্যা তার চেয়ে অনেক বেশি। কম পরীক্ষা করার কারণে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রকৃত চিত্র উঠে আসছে না।

আইসিডিডিআরবির কর্মকর্তা জন ক্লেমেনসের অনুমান, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাতেই করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ইতিমধ্যে সাড়ে সাত লাখ ছাড়িয়ে থাকতে পারে। তবে সরকারের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯১ জন; যাদের প্রায় অর্ধেকই ঢাকার।

শুধু বাংলাদেশ নয় দক্ষিণ এশিয়ার আরও দুটি দেশ ভারত ও পাকিস্তানকে নিয়েও প্রতিবেদনে একই মন্তব্য করা হয়েছে।

‘বাংলাদেশ, ভারত এবং পাকিস্তানে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ’ এই প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সপ্তাহে দেশগুলো লকডাউন তুলে দিয়েছে। এটি ১৭০ কোটি মানুষের অর্থনীতির জন্য স্বস্তি এনে দিলেও মহামারি থেকে তেমন কোনো স্বস্তি বয়ে আনবে না। বরং এর ফলে করোনা সংক্রমণ আরও দ্রুত গতিতে বাড়বে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তিন দেশে এখন পর্যন্ত সাড়ে তিন লাখের মতো করোনায় আক্রান্ত এবং নয় হাজারের কম মৃত্যু হয়েছে। এই সংখ্যা পরিমিত দেখালেও বাস্তব অবস্থা ভীতিকর। বর্তমানে এই সংখ্যা প্রতি দুই সপ্তাহে দ্বিগুণ হচ্ছে।

আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার হার দেখে কিছু মডেলে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছে যে, জুলাইয়ের শেষ নাগাদ প্রাদুর্ভাবটি চূড়ান্ত রূপ নেবে। তখন এই তিন দেশে সংক্রমণের সংখ্যা ৫০ লাখে পৌঁছতে পারে এবং মৃতের সংখ্যা দেড় লাখে পৌঁছতে পারে।

পাকিস্তানে কর্মরত বিদেশি এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেছেন, সরকারিভাবে করোনায় মৃত্যুর যে সংখ্যা প্রকাশ করা হচ্ছে, বাস্তবে মৃতের সংখ্যা তার দুই থেকে তিনগুণ বেশি। এই অঞ্চলের মারাত্মক আক্রান্ত অংশগুলোতে ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তীব্র চাপের মধ্যে পড়েছে।

পাকিস্তানের চিকিৎসকরা বলেছেন, দেশটির হাসপাতালে পর্যাপ্তসংখ্যক শয্যা আছে বলে সরকার যে দাবি করছে, তা একেবারে ভিত্তিহীন।

পাকিস্তান মেডিকেল এসোসিয়েশনের নেতা কায়সার সাজ্জাদ বলেন, পরিস্থিতি খুব, খুবই বাজে।

ভারতে রাজধানী দিল্লিতে অন্তত ৬০০ জন স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন; যাদের মধ্যে ৩২৯ জনই দেশটির শীর্ষ মেডিকেল গবেষণা প্রতিষ্ঠান অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেসের। দেশটির সব অঞ্চলেই এখন দ্রুতগতিতে করোনা ছড়িয়ে পড়ছে।

  • 136
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • রামেকে আরও ৬২ জনের করোনা শনাক্ত
  • টেন্ডার ছাড়াই কাজ করেন নওহাটা পৌর মেয়র
  • মোহনপুরে শিক্ষকের উদ্যোগে বাঁশের সেতু
  • পুঠিয়ার বানেশ্বরে বাজারে জলাবদ্ধতায় জনদূর্ভোগ
  • দেশে করোনা থেকে সুস্থের সংখ্যা লাখ ছাড়াল
  • রাজশাহী হাসপাতালে করোনা উপসর্গে বৃদ্ধের মৃত্যু
  • রাজশাহীতে যুবককে পিটিয়ে হত্যা
  • সিরাজগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হাতে যুবক খুন
  • কয়েক মাসের মধ্যেই করোনার অ্যান্টিবডি বিলীন
  • নওগাঁয় প্রতিবেশির লাঠির আঘাতে বৃদ্ধের মৃত্যু
  • ভারতে কমেছে সুস্থতার হার, আক্রান্ত ৯ লাখ ছাড়াল
  • রাজশাহী বিভাগে একদিনে শনাক্ত ২১৩, মৃত্যু বেড়ে ১১৭
  • সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন প্রায় ৭৭ লাখ
  • দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের যুদ্ধবিমানের নকশায় ভূমিকা রাখেন যে কিশোরী
  • হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • উপরে