গরমে যা সঙ্গে রাখতে পারেন

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২; সময়: ২:২১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক :  গরম বাইরে রোদের তাপ দেখলে ঘর থেকে বের হতে ইচ্ছা হয় না নিশ্চয়ই! কিন্তু প্রয়োজন তো বাধা মানে না। যারা এই গরমে ঘর থেকে বের হচ্ছেন প্রতিদিন সঙ্গে তাদের কী কী থাকা প্রয়োজন চলুন জেনে নেই।

ব্যাগের ধরন
এই গরমে পরিবর্তন আনতে হবে আপনার ব্যাগের ধরনে। টটে ব্যাগ, বাকেট ব্যাগ, বড় ঝোলানো কাঁধব্যাগ বেছে নেওয়া উচিত।

পানির বোতল
গরমে পানির বোতল সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জিনিস। গরমে নিজেকে আর্দ্র রাখার জন্য পানির বোতল রাখার কোনো বিকল্প নেই। প্রতিদিন প্লাস্টিকের বোতলের পানি না কিনে বরং একেবারে একটু ভালো মানের বোতল যেমন স্টেনলেস স্টিল, ফুড গ্রেড বোতল কিনে নেওয়া যায়। এটি যেমন পকেট সাশ্রয়ী তেমনি পরিবেশ বান্ধব। তাছাড়া গরমে অন্যান্য পানিবাহিত রোগের প্রকোপ বেড়ে যায়। তাই বাসা থেকে পানি নিলে সেই ঝুঁকিও কমবে অনেকখানি।

সানস্ক্রিন
গরমে আপনার ব্যাগে সানস্ক্রিন রাখাটা অনেক উপকারী। তীব্র গরমের এই রোদ থেকে নিজের ত্বককে বাঁচাতে সানস্ক্রিনের জুড়ি নেই। দুই থেকে তিন ঘণ্টা পর পর সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিতে হবে। শুধু মুখে নয় বরং যে জায়গাগুলো উন্মুক্ত থাকে যেমন হাত, গলা, পায়েও সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিতে হবে। সানস্ক্রিন লাগানোর আগে ওয়েট টিস্যু দিয়ে স্কিনকে পরিষ্কার করে নিলে মুখে ভালো হয়। গরমে উচ্চ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। এতে ইউভিএ ও ইউভিবি এর মত ক্ষতিকর রশ্মি থেকে নিজেকে সুরক্ষিত করা যাবে। ঘর থেকে বের হওয়ার ৩০ মিনিট আগেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করে নিলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

ছাতা ও সানগ্লাস

শুরুতেই বলে নিয়েছিলাম গরমের ব্যাগ কেমন হবে। কারণ এতে আপনাকে জায়গা দিতে হবে সানগ্লাস, ছাতা, পানির বোতল অন্যান্য অনেক কিছু। সূর্যের প্রখর তাপ থেকে বাঁচার জন্য ছাতার ব্যবহার অনেক আগে থেকেই। এখন ট্যাবলেট সাইজের, সুন্দর ডিজাইনের ছাতা পাওয়া যাচ্ছে। যা খুব সহজেই বহনযোগ্য। অপরদিকে সানগ্লাস যেমন খুবই স্টাইলিশ, তেমনি ইউভি রশ্মি থেকে আপনার চোখকে বাঁচাবে। ভালো মানের সানগ্লাস কেনাই ভালো।,আর যদি চোখে পাওয়ার চশমা ব্যবহার করে থাকেন সেক্ষেত্রে সানগ্লাসে চোখের পাওয়ার এডজাস্ট করে নিতে পারেন।

বডি স্প্রে ও পারফিউম
এই তীব্র গরমে ঘাম থেকে সৃষ্টি হতে পারে দুর্গন্ধ। এজন্য অস্বস্তিকর অবস্থায় পড়তে হয় মাঝেমধ্যে। সেক্ষেত্রে ব্যাগে রাখুন মিনি বডি স্প্রে বা পারফিউম। বর্তমানে বাজারে সব জনপ্রিয় ব্র্যান্ডেরই পারফিউমের মিনি ভার্সন পাওয়া যায়। সেগুলো যেমন বাজেট ফ্রেন্ডলি তেমনি নিমেষেই দিবে সজীবতা।

ফেস মিস্ট
গরমে ঘাম হওয়ার কারণে তৈলাক্ত মুখ চিটচিটে হয়ে ওঠে। আবার শুষ্ক গরমে ত্বক অতিরিক্ত শুকিয়ে গিয়ে জ্বালা করে। এতে করে ডিহাইড্রেশন হয়। তাই ব্যাগে রেখে দিন ফেস মিস্ট। সময় মতো মুখে স্প্রে করে নেন। রোজ ফেস মিস্ট যেমন সুগন্ধি, তেমনই আপনাকে হাইড্রেট দেখাবে। মুখের ক্লান্তির ভাব দূর করবে। রোজ মিস্ট সব ত্বকের জন্যই ভালো। তাছাড়া ত্বকের ধরন অনুযায়ী বেছে নিন আপনার প্রিয় মিস্ট।

চ্যাপস্টিক ও ব্লাম
গরমের লম্বা সময় বাইরে থাকলে শুষ্ক হয়ে উঠতে পারে ঠোঁট। তাই উচ্চ এসপিএফ যুক্ত লিপ ব্লাম অথবা চ্যাপস্টিক ব্যবহার করা জরুরি। যা ঠোঁটকে কালো হওয়া থেকে রক্ষা করবে। পাশাপাশি আর্দ্রতাও বজায় থাকবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে