তীব্র পেটব্যথায় যেসব লক্ষণে নেবেন জরুরি চিকিৎসা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২১; সময়: ১:০৫ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : পেটব্যথা আমাদের সবার কাছে একটি পরিচিত রোগ। কমবেশি সবাই আমরা এ সমস্যায় ভুগি। এটি হয়ে থাকে বদহজম-গ্যাস্টিকের কারণে, অ্যাপেনডিসাইটিসসহ নানা কারণে। অনেক সময় পেটব্যথা তীব্র আকার ধারণ করে।

তাই পেটব্যথা হলে সেটিকে অবহেলা করা যাবে না। পেটব্যথার যেসব লক্ষণ দেখলে জরুরি ভিত্তিতে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে। আসুন জেনে নিই সেই সম্পর্কে—

১. জ্বর
পেটব্যথার সঙ্গে আপনার জ্বর যদি ১০৪ ডিগ্রির বেশি হয় এবং দুদিনের বেশি সময় এমনটা থাকেন, তবে জরুরিভাবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এমনটি হলে অ্যাপেনডিসাইটিস, কোলাইটিসের মতো সমস্যা হতে পারে।

২. মলের সঙ্গে রক্তপাত
পেটব্যথার সঙ্গে যদি আপনার মলের সঙ্গে রক্তপাত হয় তবে এটি আলসার, কোলন ক্যান্সার এবং ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের মতো রোগের লক্ষণ হতে পারে। তাই এমনটা হলে দ্রুতই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিৎ।

৩. পেটের ডান দিকে নিয়মিত ব্যথা
নিয়মিতভাবে পেটের ডান দিকে তীক্ষ ব্যথা থাকলে সেটি অ্যাপেনডিসাইটিসের লক্ষণ হতে পারে। আর এমনটি হলে তা আপনাকে মারাত্মক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই এ রকম হয়ে থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৪. বমি
পেটেব্যথার পাশাপাশি বমি করা বা বমিভাব হওয়াটা গ্যাস্ট্রোএন্টেরাইটিস, ইরিটেবল অন্ত্র সিন্ডোমের মতো মারাত্বক সমস্যার লক্ষণ হতে পারে। এমনটা হলে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া উচিৎ।

৫. ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্য
পেটে ব্যথার পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে তা ডাইভার্টিকুলাইটিস, প্রদাহজনক অন্ত্রের রোগ, অন্ত্রের বাধা, এমনকি ডায়াবেটিস বা হাইপোথাইরয়েডিজমের মতো লক্ষণও হতে পারে। আর পেট ব্যথার সঙ্গে আপনার ডায়রিয়া হলে সেটি গ্যাস্ট্রোএন্টেরাইটিস, ফুড অ্যালার্জি, কোলাইটিস, এপেন্ডিসাইটিস, সিলিয়াক ডিজিজ, ক্রোনস ডিজিজ বা অন্য কোনো অবস্থার লক্ষ হতে পারে।

তাই পেটে ব্যথার সঙ্গে ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্য তাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৬. ওষুধেও ব্যথা না কমা
পেটব্যথা ক্রমাগত বাড়তে থাকলে এবং ওষুধ খাওয়ার পরও ব্যথা না কমলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কারণ এমনটা হওয়া আপনার গুরুতর কোনো রাগের লক্ষণকে ইঙ্গিত করতে পারে।

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে