বর্ষায় নিত্যসঙ্গী রেইনকোট

প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২১; সময়: ১০:৫৫ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক :

‘গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা।/ কূলে একা বসে আছি, নাহি ভরসা।’
রবি ঠাকুরের কবিতার মতোই এখন আকাশের মেঘ ইদানীং কাউকে খুব একটা ভরসা দিচ্ছে না। ঝকঝকে আকাশ দেখে ঘর থেকে বের হলেও বৃষ্টি চলে আসতে পারে যেকোনো সময়। বর্ষা মৌসুম আসার আগেই বৃষ্টিতে সব একাকার। কিন্তু প্রয়োজনীয় কাজের জন্য বাসায় বসে সব সময় তা উপভোগ করার সুযোগ কোথায় বলুন।

ছাতা নিয়ে চলাফেরা করা অনেকের জন্যই কষ্টকর। আবার বৃষ্টি বেশি হলে ছাতা সঙ্গে থাকলেও ভিজে যাওয়ার ভয় থাকে। এমন অবস্থায় কার্যকর সমাধান হতে পারে রেইনকোট। বিশেষ করে যাঁরা মোটরসাইকেল বা সাইকেল চালান তাঁদের জন্য এটি বেশি জরুরি। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেইনকোটের খোঁজখবর।

রেইনকোটের ধরন
বাজারে কিনতে পাওয়া যায় নানা ধরনের রেইনকোট। শিশু কিংবা প্রাপ্তবয়স্ক—সবার জন্যই মাপ মিলিয়ে কিনতে পারবেন। ছোটদের জন্য তৈরি রেইনকোটগুলো উজ্জ্বল রঙের ব্যবহার বেশি থাকে। শিশুর জন্য রং-বেরঙের রেইনকোট পাবেন। কিছু রেইনকোটগুলো রাঙানো হয়েছে স্পাইডারম্যান, ব্যাটম্যান, মিকিমাউসসহ বিভিন্ন কার্টুনে। বড়দের জন্য ফ্যাশনেবল রেইনকোটও দেখা যায়। তবে রেইনকোটের ডিজাইন দেখার আগে খেয়াল রাখতে হবে এর ফেব্রিকের দিকে। ভালো মানের ফেব্রিক না হলে বৃষ্টির মোকাবিলা করা সহজ হবে না।

মেয়েদের জন্য বিভিন্ন ডিজাইনের ফ্যাশনেবল রেইনকোট রয়েছে বাজারে। সেখান থেকে পছন্দের ডিজাইনটি বেছে নিতে পারেন। সাধারণত মেয়েরা ওভারকোট ধরনের রেইনকোট বেশি পছন্দ করে থাকেন। বাজারে দেশি ছাড়াও ইন্ডিয়ান ও চায়না রেইনকোটের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। সিঙ্গেল পার্ট ও ডাবল পার্টের রেইনকোট পাওয়া যায়। ডাবল পার্ট রেইনকোটের দুই পাশই ব্যবহার করা যায়। লং রেইনকোটে দুই ধরনের হুডির দেখা মিলবে। লং ও শর্ট। হুডি আলাদা করে রাখার জন্য আছে চেইন। বাজারে পাওয়া যায় যেসব রেইনকোট, তা সাধারণত পলিয়েস্টার অথবা প্যারাস্যুট কাপড়ের। এর বাইরে কম দামে পাবেন প্লাস্টিকের রেইনকোটও। একরঙা রেইনকোটগুলো পাবেন বিভিন্ন ব্র্যান্ডের লোগোর ছাপসংবলিত।

বেশি দামের মধ্যে ডার্বিসুপার, কমফোর্ট, ব্রিদবেল, রেড চ্যাম্পিয়ন ইত্যাদি ব্যান্ডের রেইনকোট বেশি জনপ্রিয়। দীর্ঘদিন ব্যবহারও করা যায়। আর কম দামের মধ্যে আছে প্যারাস্যুট, বিগবস, ফিলিপস, পলিয়েস্টার, ওয়াটারপ্রুফ। তবে প্লাস্টিকের রেইনকোট না কিনে প্যারাস্যুট কাপড়ের রেইনকোট কেনাই ভালো। কারণ, এগুলো দীর্ঘস্থায়ী।

রেইনকোটের দরদাম
শিশুদের জন্য রেইনকোট পাওয়া যাবে ৫০০ থেকে ৮০০ টাকার মধ্যে, এর বাইরে পালসার অথবা ডিসকভারির টু-পিস রেইনকোটগুলোর দাম পড়বে ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা। অরবিটের ওভারকোট রেইনকোটের দাম পড়বে ৭০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে। পিভিসি কাপড়ের রেইনকোট পাওয়া যাবে ৭০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে। ফুজির দাম পড়বে ১ হাজার ২০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা। ডার্বিসুপার, কমফোর্ট, ব্রিদবেল, রেড চ্যাম্পিয়ন ব্যান্ডের রেইনকোট পাবেন ১ হাজার ৭০০ টাকার মধ্যে। আরও কম দামে বড়দের রেইনকোট পাবেন নোভানা, ইসক্লিপ। দাম প্রায় ৬০০ টাকা। ব্র্যান্ড ও কোয়ালিটিভেদে দামের তারতম্য হয়ে থাকে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে