বিয়ের আগে মেয়ে সম্পর্কে যা না জানলে পস্তাবেন!

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১; সময়: ১:৩০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিয়ে মানেই সারা জীবনের জন্য একজন মানুষের সঙ্গে সঙ্গী হয়ে পথচলা। তার খারাপ কিংবা ভালো মুহূর্তে ছায়ার মতো পাশে থাকা। তার সুখ-দুঃখের অংশীদার হওয়া। তাইতো জীবনের এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তটি নেয়ার আগে এক বার নয় হাজার বার চিন্তা করা জরুরি। জীবনসঙ্গী হিসেবে আপনি যে মেয়েটিকে বেছে নিচ্ছেন, তার সম্পর্কে অবশ্যই আপনার খুব ভালোভাবে জানা প্রয়োজন।

কারণ বিয়ের পর নানা ধরণের অশান্তি লেগেই থাকে। এমন দৃশ্য আমাদের সমাজে প্রায়ই দেখা যায়। অনেকের সংসারে সুখ নামক শব্দটির কোনো জায়গাই থাকে না। বিয়ের পর আসলে এসব মেনে নেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় থাকে না। তাই যা করার বিয়ের আগেই করতে হবে। বিয়ের বিষয়ে খুব সাবধানতা অবলম্বন করা দরকার। তাইতো সারা জীবন সুখে থাকার জন্য সৌন্দর্য নয়, দেখুন এমন কিছু গুণ যা আপনাদের সংসারে সুখ বয়ে আনবে।

চলুন জেনে নেয়া যাক এমন কিছু বৈশিষ্ট্যের কথা, যা একজন মেয়ে সম্পর্কে আপনার জানা জরুরি। এবং এসব বৈশিষ্ট্য ওই মেয়ের মধ্যে থাকলে তবেই আপনি সুখী হবেন-

>> সৎ এবং চরিত্রবান মেয়েকে বিয়ে করুন। কারণ আপনার ঘরের বউ যদি সৎ ও চরিত্রবান না হয় হবে সেই সংসারে কখনোই সুখ আসবে না।

>> বিয়ের জন্য দায়িত্ববান মেয়েকে বেছে নিন। যে সবার প্রতি সমানভাবে খেয়াল রাখবে। তবেই সংসার সুখে হবে।

>> একটু সরল ও ধার্মিক প্রকৃতির মেয়েকে বিয়ে করুন। কারণ এই ধরণের মেয়েরা একটু নরম স্বভাবের হয়ে থাকে এবং স্বামীর প্রতি অনুগত থাকে। আর সে আপনাকে সুখী করার জন্য যথেষ্ট চেষ্টাও করবে।

>> বিয়ের জন্য শান্ত স্বভাবের মেয়ে বেছে নিন। অর্থাৎ, যেসব মেয়েদের মধ্যে নিরবতা এবং কোমলতা বা যারা বেশিরভাগ সময় নিরব ও চুপচাপ থাকে, অনেক আস্তে আস্তে কথা বলে, অনেক নরম স্বভাবের এমন মেয়ে পছন্দ করুন।

>> সুশিক্ষায় যে শিক্ষিত তাকে বিয়ে করুন। তাহলে আপনার সংসার হবে সৃজনশীল। নইলে যাবে রসাতলে।

>> যাকে বিয়ে করছেন সে কথায় কাজে ঠিক আছে তো? হ্যাঁ, যেসব মেয়ে তাদের কথায় কাজে সৎ এবং কথা দিয়ে কথা রাখে এই রূপ মেয়েকে বিয়ের জন্য বেছে নিন।

>> পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি থাকা মানুষকে সবাই পছন্দ করে। তাই এমন মেয়েকেই বিয়ের জন্য বেছে নিন যে অপরিষ্কার নয়।

এই সাতটি বৈশিষ্ট যে মেয়ের মধ্যে থাকবে সে অবশ্যই একজন ভালো মানুষ। এই রূপ মানুষকে বিয়ে করলে সুখি হওয়ার সম্ভবনা শতভাগ। তাই সময় থাকতেই সঠিক মানুষটিকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিন।

  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে