কোন বস্তুতে করোনা কতক্ষণ বেঁচে থাকে

প্রকাশিত: জুন ১৭, ২০২০; সময়: ৩:১৯ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : পুরো পৃথিবী কবে করোনামুক্ত হবে সেই অপেক্ষায় আর আতঙ্ক নিয়েই ‘নতুন স্বাভাবিক জীবন’ শুরু করছে বিশ্ব। হাত জীবাণুমুক্ত করা, মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাই এখন পুরো পৃথিবীর জন্য ‘নতুন স্বাভাবিক জীবন’। জীবিকা নির্বাহ এবং অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে অনেক মানুষকেই দীর্ঘ সময় বাড়ির বাইরে থাকতে হচ্ছে। বাড়ির ভেতরে -বাইরে উভয় জায়গাতেই নিরাপদ থাকতে করোনাভাইরাস বিভিন্ন বস্তু এবং বাতাসে কতক্ষণ বেঁচে থাকে তা জানা জরুরি।

করোনার টিকে থাকা বস্তুর ভিন্নতার ওপর নির্ভর করে। চলুন জেনে নেই করোনাভাইরাস বিভিন্ন বস্তুতে কতক্ষণ স্থায়ী হয়-

ধাতু: রান্নার হাঁড়ি, রান্নার প্যান, কাটলারি, সিংক, ধাতব হ্যান্ড্রেল, স্টিলের পানির বোতল, চাবি, দরজার লক, দরজার হাতল, ফ্রিজের স্টেইনলেস স্টিলে করোনা দুই থেকে তিনদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। ল্যানসেটের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাস সাত দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

তামার কয়েন, গহনা, বৈদ্যুতিক তার, রান্নার বাসন ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ৪ ঘন্টা। অ্যালুমিনিয়াম, খাবার প্যাকেজিং, কোমল পানীয় এর ক্যান, টিনফয়েল, পানির বোতল ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ২ থেকে ৮ ঘণ্টা।

কাঠ, প্লাস্টিক ও কাঁচ: আসবাবপত্র, তাক, খেলার সরঞ্জামে করোনা দুই থেকে চারদিন বেঁচে থাকতে পারে। পানির বোতল, দুধের পাত্র, ডিটারজেন্ট বোতল, ট্রেনের চেয়ার, বাসের আসন, কাঁধের ব্যাগ, লিফটের বোতাম, ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, রিমোট, সুইচ, কম্পিউটারের কি-বোর্ড, কম্পিউটারের মাউস, এটিএমের বোতাম, খেলনা ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ২ থেকে ৩ দিন। পানির গ্লাস, কাপ, আয়না, জানালা, দরজা, দেয়াল, আসবাব, টিভি স্ক্রিন, কম্পিউটার স্ক্রিন, স্মার্টফোন স্ক্রিন ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ৪ থেকে ৫ দিন।

পিচবোর্ড: আসবাবপত্র, শিপিং বক্স, খাবার প্যাকেজিং ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ২৪ ঘন্টা।

কাগজ: কাগজের টাকা, চিঠিপত্র, স্টেশনারি, ম্যাগাজিন, সংবাদপত্র, টিস্যু, টয়লেট পেপার ইত্যাদিতে বেঁচে থাকার সময়কাল ৩ ঘণ্টা থেকে ৫ দিন।

কাপড়: বিভিন্ন ধরনের কাপড়, পোশাক এবং লিনেনে বেঁচে থাকার সময়কাল ২ দিন।

এছাড়া মানুষের ত্বক এবং চুলেও করোনাভাইরাস বেঁচে থাকতে পারে। তবে ঠিক কতক্ষণ সেটি স্থায়ী হয় সে বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো গবেষণা হয়নি। করোনাভাইরাস বাতাসে কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে?

কোভিড-১৯ আক্রান্ত কোনো ব্যক্তি একবার কাশি দিলে আশপাশের বাতাসে ৩ হাজার ড্রপলেট ছড়িয়ে পড়তে পারে। এটি অনুমান করা হয় যে বায়ুবাহিত ড্রপলেটগুলো প্রায় ৩ ঘণ্টার জন্য সক্রিয় থাকতে পারে এবং এগুলো সংক্রামক করোনাভাইরাস বহন করতে পারে। এ ড্রপলেটগুলোর মাধ্যমে এক ব্যক্তি থেকে অন্য ব্যক্তিতে করোনা ছড়াতে পারে, যদি তারা দুই মিটারেরও কম দূরত্বে থাকেন।

তবে, কোনো ব্যক্তি যদি এমন কোনো বস্তুর সংস্পর্শে আসেন যার ওপরে করোনাভাইরাসের ড্রপলেট পড়েছে এবং এখনও সেটি জীবাণুমুক্ত করা হয়নি তবে সেই ব্যক্তি কোভিড-১৯ দ্বারা সংক্রমিত হতে পারেন। এছাড়া কথা বলার সময়ও করোনাভাইরাসের ড্রপলেটগুলো বাতাসে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

করোনাভাইরাসের বেঁচে থাকার সময়কাল অবশ্যই তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতার মতো কারণগুলো দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে। সিডিসির তথ্য মতে, উচ্চ তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতায় নতুন করোনাভাইরাস অল্প সময়ের জন্য বেঁচে থাকতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, নতুন করোনাভাইরাস ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস (প্রায় ৩৯ ডিগ্রি ফারেনহাইট) তাপমাত্রায় অত্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে। অন্যদিকে, ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস (১৫৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট) তাপমাত্রায় এটি দ্রুত নিষ্ক্রিয় হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • যে তিন কথা সঙ্গীকে কখনোই বলবেন না
  • সঙ্গী যেমনই হোক আন্তরিকতা থাকলেই সুখ আসবে দাম্পত্য জীবনে
  • ঈদের পর পেটের মেদ কমাবে এই জাদুকরী পানীয়
  • মাস্ক পরায় বাড়ছে ব্রণ, জেনে নিন করণীয়
  • সুখী হতে চাইলে মেনে চলুন বিল গেটসের তিন পরামর্শ
  • মাইগ্রেনের যন্ত্রণায় কাবু? জেনে নিন প্রতিকার
  • আমার কি করোনা হয়েছে, বুঝব কী উপায়ে?
  • ঈদে সহজেই তৈরি করুন আচারি মাংস
  • ‘অন্তর্বাস’ সম্পর্কে যে তথ্যগুলো জেনে রাখা অত্যন্ত জরুরি
  • কোন পোশাকে কেমন গয়না মানানসই জেনে নিন
  • সম্পর্কে একঘেয়েমি দূর করার দারুণ কৌশল
  • নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার চিনবেন যেভাবে
  • হারানো যৌবনকে ফিরিয়ে দেবে ঘরে থাকা একটি উপাদান
  • তৎক্ষণাৎ হেঁচকি থামানোর পাঁচ উপায়
  • কাঁঠালের বিচির উপকারিতা, পরিষ্কার করুন সহজেই
  • উপরে