কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তিনটি পদে পুনরায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১; সময়: ১০:২৫ am |
খবর > চাকরি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বাংলাদেশ ব্যাংক তিনটি পদে পুনরায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকটিতে অফিসার (পুরকৌশল, তড়িৎকৌশল ও যন্ত্রকৌশল) পদে মোট ২৮ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এর আগে যারা আবেদন করেছিলেন তাদের পুনরায় আবেদন করার প্রয়োজন নেই। তবে যারা আগে আবেদন করেননি বা প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারেননি তারা প্রবেশপত্র ডাউনলোড করার সুযোগ পাবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম

অফিসার (পুরকৌশল ৬টি, তড়িৎকৌশল ১৪টি, যন্ত্রকৌশল ৮টি)।
শিক্ষাগত যোগ্যতা

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যে কোনো স্বীকৃত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ডিগ্রি। মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট বা তদূর্ধ্ব কোনো পর্যায়ের পরীক্ষায় কমপক্ষে একটি প্রথম শ্রেণি থাকতে হবে। শিক্ষাজীবনের কোনো পর্যায়েই তৃতীয় বিভাগ থাকা যাবে না।
বেতন:

১৬০০০-৩৮৬৪০ টাকা। অন্যান্য সুবিধা প্রতিষ্ঠানের নীতিমালা অনুসারে প্রদান করা হবে।
আবেদনের নিয়ম
বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়োগ সংক্রান্ত ওয়েবসাইট https://erecruitment.bb.org.bd/onlineapp/joblist.php থেকে আবেদন করা যাবে।

আবেদনের বয়স সীমা

গত বছরের মার্চে বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস, আর ৮ মার্চ প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। ১৮ মার্চে করোনায় প্রথম মৃত্যু হয় বাংলাদেশে। করোনা ছড়িয়ে পড়ার কারণে বন্ধ ছিল চাকরির অনেক নিয়োগ ও পরীক্ষা। তাই সরকার চাকরির আবেদনের জন্য বয়স কমিয়ে দেয়। গত বছরের ২৫ মার্চ যাদের ৩০ বছর পূর্ণ হয়েছে, সরকারি চাকরিতে তাদের আবেদনের সুযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

এ নিয়ে প্রজ্ঞাপনও জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ওই প্রজ্ঞাপনের আলোকে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত বছরের ২৫ মার্চে প্রার্থীর বয়স সর্বোচ্চ ৩০ বছর হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধী আবেদনকারীর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বয়সসীমা একই দিনে ৩২ বছর। এ নিয়োগ বিজ্ঞতি আগের নিয়মে চলবে। তবে গতকাল – মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর ) সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই বলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জাতীয় সংসদে এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী জানান, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির জন্য বিসিএস বাদে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ নানা ক্যাটাগরির সরকারি চাকরিতে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারেনি। ওই সব প্রতিষ্ঠানকে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকাশিতব্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে প্রার্থীদের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ২৫ মার্চ ২০২০ তারিখ নির্ধারণ করার অনুরোধ করা হয়।
ফরহাদ হোসেন বলেন, আগে বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বড় ধরনের সেশনজট থাকলেও বর্তমানে নেই বললেই চলে। ফলে, শিক্ষার্থীরা সাধারণত ১৬ বছরে এসএসসি, ১৮ বছরে এইচএসসি, ২৩ থেকে ২৪ বছরে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করে থাকেন। সাধারণ প্রার্থীদের জন্য চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩০ বছর বিধায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনের পরও তারা চাকরিতে আবেদনের জন্য ছয় থেকে সাত বছর সময় পেয়ে থাকেন। এ ছাড়া ৩০ বছর বয়সসীমার মধ্যে একজন প্রার্থী চাকরির জন্য আবেদন করলে নিয়োগপ্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে দু–এক বছর সময় লাগলেও তা গণনা করা হয় না।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি সরকারি চাকরি থেকে অবসরের বয়সসীমা ৫৭ থেকে ৫৯ বছরে উন্নীত হওয়ায় বর্তমানে শূন্যপদের সংখ্যা স্বাভাবিকভাবেই কমেছে। এ প্রেক্ষাপটে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হলে বিভিন্ন পদের বিপরীতে চাকরিপ্রার্থীদের সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাবে। এ কারণে নিয়োগের ক্ষেত্রে বেশি প্রতিযোগিতার সৃষ্টি হতে পারে। এতে যাদের বয়স ৩০ বছরের বেশি তারা চাকরিতে আবেদন করার সুযোগ পেলেও ৩০–এর কম বয়সী প্রার্থীদের মধ্যে হতাশার সৃষ্টি হতে পারে। এ কারণে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই।

  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে