পরিবেশ রক্ষা করতে গিয়ে এত মৃত্যু এই প্রথম

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১; সময়: ১২:২৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : পরিবেশের রক্ষার কাজ করতে গিয়ে রেকর্ডসংখ্যক পরিবেশ অধিকারকর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবেশবিষয়ক সংস্থা গ্লোবাল উইটনেস। সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২০ সালে ২২৭ জন পরিবেশ অধিকারকর্মী মারা গেছে। এ নিয়ে টানা দুই বছর পরিবেশ রক্ষা করতে গিয়ে মৃত্যুর রেকর্ড হলো।

গত বছরের এই রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যুর মধ্যে এক-তৃতীয়াংশের বন উজার, খনি খনন, বৃহৎ আকারের কৃষি ব্যবসা, জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য বাঁধ নির্মাণ এবং অন্যান্য অবকাঠামো নির্মাণ করে প্রাকৃতিক সম্পদ বিনষ্ট করাকে দায়ী করা হয়েছে।

পরিবেশ রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ হারানো এসব মানুষকে ওই প্রতিবেদনে ‘পরিবেশ রক্ষাকারী’ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা করতে গিয়ে এসব মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। অথচ বনভূমি, পানি সরবরাহ এবং সমুদ্রের মতো এসব প্রাকৃতিক সম্পদে রক্ষা স্বাভাবিকভাবেই হওয়া উচিত।

গ্লোবাল উইটনেস বলছে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় ২০১৫ সালে ‘প্যারিস সমঝোতা’ স্বাক্ষরিত হওয়ার পর থেকে প্রতি সপ্তাহে গড়ে চারজন অধিকারকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তবে এই সংখ্যাটাও হয়তো প্রকৃত সংখ্যার চেয়ে কম।

বন উজারের কারণে সবচেয়ে বেশি ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মূলত ব্রাজিল, নিকারাগুয়া, পেরু এবং ফিলিপাইনের মতো দেশে এসব মানুষ হামলার শিকার হয়েছেন। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া মৃতের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ আদিবাসী।

গত বছর সবচেয়ে বেশি পরিবেশ অধিকারকর্মীর মৃত্যু হয়েছে কলম্বিয়ায়। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মেক্সিকো। এ তালিকায় পিলিপাইন তৃতীয় ও ব্রাজিল চতুর্থ স্থানে রয়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় সবচেয়ে কম পরিবেশকর্মী মারা গেছেন ২০১৩ সালে ৯২ জন। এর আগের বছর, অর্থাৎ ২০১২ সালে মারা গেছেন ১৩৯ জন। ২০১৪ সালে মারা গেছেন ১১৫ জন। এছাড়া ২০১৫ সালে ১৮৫, ২০১৬ সালে ১৯৮, ২০১৭ সালে ২০১, ২০১৮ সালে ১৬৭ ও ২০১৯ সালে ২১২ জন মারা গেছেন।

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে