ব্যাংককের এক লাখ বাসিন্দার বস্তিতে গণকোভিড-১৯ পরীক্ষা শুরু

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১; সময়: ১০:০০ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মাসে দেড়শ ডলার ব্যয়ে একটি পরিবারকে জীবনধারণে যেখানে কষ্টসাধ্য হয়ে যায়, সেখানে কোভিড-১৯ পরীক্ষা শুধুমাত্র কয়েকজনের পক্ষেই হয়তো সম্ভব। তবে একটি দাতব্য সংস্থার কল্যাণে তা সম্ভব হয়ে উঠছে।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের সবচেয়ে বড় বস্তিটি হলো দ্যা খলং তোয়ি। ছোট, ঘিঞ্জি বস্তিটিতে অন্তত এক লাখ মানুষের বসবাস। যা করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে ‘দুলতে থাকা’ এশিয়ার দেশটির মাথাব্যথার অন্যতম একটি কারণ।

এরইমধ্যে বস্তিটির বাসিন্দাদের গণকোভিড-১৯ পরীক্ষা শুরু করেছে ব্যাংকক কমিউনিটি হেল্প ফাউন্ডেশন নামের একটি দাতব্য সংস্থা। পুরো ব্যাংকক যাতে ফের করোনা সংক্রমিত না হয় সেজন্য তারা এ কার্যক্রম শুরু করেছে। এরইমধ্যে এক হাজার বাসিন্দার করোনা পরীক্ষায় ৫০ জনের ফল পজিটিভ এসেছে।

ফাউন্ডেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফ্রিসো পোলডারভার্ট একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, এখানে গাদাগাদি করে ছোট জায়গায় অনেক মানুষ বসবাস করে। কোনো কোনো ঘরে দেখা যায় ২০ বর্গমিটার জায়গায় ১০ জনও বসবাস করছে। তার মানে তাদের একজনের করোনা পজিটিভ হলে বাকিদেরও সম্ভাবনা রয়েছে। যদি কারো ফল পজিটিভ আসে, তার ঘরে আইসোলেশনে থাকারও ব্যবস্থা নেই।

গত এপ্রিল থেকে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে থাইল্যান্ড। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৩ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৩ হাজারের বেশি মানুষ। করোনার ধাক্কায় ১৯৯৭ সালের পর দেশটি অর্থনৈতিক মন্দায় পড়তে যাচ্ছে। চাকরি হারিয়ে অনেকে এরইমধ্যে বেকার হয়ে পড়েছেন।

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে