১৬৭ দিনের মধ্যে করোনায় সর্বনিম্ন মৃত্যু দেখল ভারত

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১; সময়: ২:১৫ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : প্রাণঘাতী রোগ করোনায় রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারতে মারা গেছেন ২১৯ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সোমবারের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ১৬৭ দিনের মধ্যে (সাড়ে ৫ মাসেরও বেশি সময়) রোববার করোনায় সর্বনিম্ন মৃত্যু দেখেছে দেশটি।

এই দিন করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ঘটেছে কেরালায়। এই দিন দেশটির সর্বদক্ষিণের এই রাজ্যটিতে মারা গেছেন ৭৪ জন। একই দিন ৬৭ মৃত্যু নিয়ে এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে মহারাষ্ট্র। টানা ৪৮ দিন পর ভারতে করোনায় মৃত্যুর শতকরা হার ১ দশমিক ৩৩ শতাংশে নেমেছে বলে সোমবারের বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

এছাড়া, রোববার ভারতে করোনায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ৯৪৮ জন, যা আগের দিন শনিবারের চেয়ে প্রায় ৪ হাজার কম। এই নিয়ে টানা ৭১ দিন ধরে ভারতে করোনায় দৈনিক আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫০ হাজারের নিচে আছে। ভারতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা বর্তমানে ৪ লাখ ১১ হাজার ৮৫৮ জন। এর বাইরে, রোববার করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৪৩ হাজার ৯১৭ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বুলেটিনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ভারতে করোনা থেকে ‍সুস্থতার শতকরা হার ৯৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ।

ভারতে করোনায় আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত বছর ৩০ জানুয়ারি, কেরালায়। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, তারপর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩ কোটি ৩০ লাখ ২৭ হাজার ১৩০ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন মোট ৪ লাখ ৪০ হাজার ৭৮৫ জন।

এছাড়া, মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ৩ কোটি ২১ লাখ ৭৪ হাজার ৪৯৩ জন। গত মার্চ মাস থেকে ভারতে শুরু হয়েছিল করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। তার প্রভাবে এপ্রিল থেকে মে পর্যন্ত করোনায় লাগামহীন সংক্রমণ-মৃত্যুতে ছারখার পরিস্থিতি দেখা দিয়েছিল দেশটিতে।

তবে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান বলছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা অনেকটাই কাটিয়ে উঠেছে ভারত।

  • 70
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে