‘গৃহযুদ্ধের পথে আফগানিস্তান’

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১; সময়: ১১:৪০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : জার্মানিতে মার্কিন সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শনে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রধান মার্ক মিলি বলেন, এমন আফগান পরিস্থিতিতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে। শনিবার জেনারেল মার্ক মাইলি এই সতর্কতার কথা জানান।

জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মাইলি বলেন, আমার সামরিক অভিজ্ঞতা বলে, আফগানিস্তানের পরিস্থিতিতে একটি গৃহযুদ্ধ শুরু হতে যাচ্ছে।

মার্ক মাইলি বলেন, আমি মনে করি সেখানে বড় ধরনের গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার বাস্তবতা রয়েছে। আর তা এমন পরিস্থিতির দিকে নিয়ে যাবে, যেখানে আল কায়েদা বা আইএস কিংবা অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আবির্ভূত হতে পারে।

মার্ক মিলি বলেন, তালেবানের হাত থেকে স্থানীয় আফগান ও বিদেশিদের রক্ষা কোরে বীরত্বের পরিচয় দিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনী। বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় কমপক্ষে ৯টি দেশের সেনা ঘাঁটিতে মার্কিন সেনারা দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে বলেও জানান তিনি।

তালেবানের আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের পর রাতের অন্ধকারে কাবুল বিমানবন্দর ছেড়ে যায় মার্কিন সেনাবাহিনী। দীর্ঘ ২০ বছর তালেবানের সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর এভাবে নিজেদের গুটিয়ে নেয়ার পর বিশ্বজুড়ে শুরু হয় তীব্র সমালোচনা।

আফগানিস্তানের হাজার হাজার মানুষকে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়ে নিজেদের রক্ষায় এভাবে আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ায় মার্কিন সেনাদের ভূমিকা নিয়ে শুরু হয় নানা আলোচনা।

তবে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের হার মানতে নারাজ ওয়াশিংটন। নিজেদের অবস্থান সঠিক ছিল উল্লেখ করে মার্কিন সেনাদের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এবার একই সুরে কথা বললেন মার্কিন সেনা প্রধান মাইক মাইলির। শনিবার জার্মানির মার্কিন সেনা ঘাঁটি পরিদর্শনে গিয়ে তিনি বলেন, সাধারণ আফগানদের সরিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে সেনারা যে দায়িত্ব পালন করেছেন তা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে