১৩২ দিন পর ভারতে সংক্রমণ ৩০ হাজারের নিচে

প্রকাশিত: জুলাই ২৭, ২০২১; সময়: ১২:২০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : এক দিনের ব্যবধানে ভারতে নতুন করে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ১০ হাজার। আর এতেই ১৩২ দিন পর দৈনিক সংক্রমণে সবচেয়ে কম রোগীর দেখা পেয়েছে দেশটি। এছাড়া দৈনিক মৃত্যুও আগের দিনের তুলনায় কমেছে। একইসঙ্গে ১২৪ দিন পর দেশটিতে সক্রিয় রোগী নেমেছে চার লাখের নিচে।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২৯ হাজার ৬৮৯ জন মানুষ। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় দেশটিতে নতুন সংক্রমিত রোগী কমেছে প্রায় ১০ হাজার। সর্বশেষ এই সংখ্যাসহ মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৯৫১ জনে।

অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪১৫ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় গত একদিনে মৃত্যু কমেছে ১ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪ লাখ ২১ হাজার ৩৮২ জন।

এদিকে দৈনিক সুস্থতা ও সংক্রমণের সংখ্যায় একদিন পরই আগের চেহারায় ফিরেছে ভারত। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত রোগীর তুলনায় সুস্থ হয়েছেন বেশি মানুষ। ফলে ১২৪ দিন পর ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা নেমেছে ৪ লাখের নিচে। চলতি বছরের ২৫ মার্চ শেষবার ভারতের সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ছিল ৪ লাখের কম। দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে বাড়তেই থাকে সক্রিয় রোগী।

গত একদিনে ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৪২ হাজার ৩৬৩ জন। অন্যদিকে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ হাজার ৬৮৯। ফলে দেশটিতে এখন মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯৮ হাজার ১০০ জন। দেশটির মোট শনাক্ত রোগীর ১ দশমিক ২৭ শতাংশ বর্তমানে সক্রিয় রোগী। দেশটিতে এখন সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭ দশমিক ৩৯ শতাংশে।

ভারতে বর্তমানে দৈনিক সংক্রমণের হার নেমে এসেছে ২ শতাংশের নিচে, ১ দশমিক ৭৩ শতাংশে। টানা ৩৬ দিন ধরে দেশটিতে এই হার ছিল ৫ শতাংশের নিচেই রয়েছে।

  • 74
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে