ভারতে কমেছে সংক্রমণ, মৃত্যু পাঁচশর নিচে

প্রকাশিত: জুলাই ২৩, ২০২১; সময়: ১২:৩৭ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভারতে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আরও কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় কমেছে নতুন সংক্রমিত রোগীর সংখ্যাও। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও কমেছে সক্রিয় রোগী। গত একদিনে ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত রোগীর তুলনায় দেশটিতে সুস্থ হয়েছেন বেশি মানুষ।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩৫ হাজার ৩৪২ জন মানুষ। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় দেশটিতে নতুন সংক্রমিত রোগী কমেছে ৬ হাজারের বেশি। সর্বশেষ এই সংখ্যাসহ মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১২ লাখ ৯৩ হাজার ৬২ জনে।

অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৮৩ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় গত একদিনে মৃত্যু কমেছে ২৪ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪ লাখ ১৯ হাজার ৪৭০ জন। মহারাষ্ট্রে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা শতাধিক। তবে বাকি সব রাজ্যেই এই সংখ্যা ৫০-এর কম।

এদিকে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত রোগীর তুলনায় সুস্থ হয়েছেন বেশি মানুষ। ফলে দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমার ধারবাহিকতা বজায় রয়েছে। গত একদিনে ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৩৮ হাজার ৭৪০ জন। অন্যদিকে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ হাজারের বেশি।

একসময় দেশটিতে ৩৭ লাখের বেশি সক্রিয় রোগী থাকলেও কমতে কমতে সেই সংখ্যা নেমে এসেছে প্রায় ৪ লাখে। দেশটিতে এখন মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৫ হাজার ৫১৩ জন।

ভারতে এখন সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কেরালায়। শুক্রবার সেখানে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৮১৮ জন। এরপরেই রয়েছে মহারাষ্ট্র রাজ্য। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৩০২ জন। ভারতে শুক্রবার মোট আক্রান্ত রোগীর প্রায় ৬০ শতাংশই এই দুই রাজ্যের।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় কর্নাটক, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, উড়িষ্যা এবং আসামে দৈনিক সংক্রমণ নেমেছে দুই হাজারের নিচে। এই রাজ্যগুলো ছাড়াও উত্তর-পূর্ব ভারতের কয়েকটি রাজ্যের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে সৃষ্টি হয়েছে উদ্বেগ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে