‘ডেল্টার বিরূদ্ধে ফাইজার ৮৮ ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা ৬৭ শতাংশ কার্যকর’

প্রকাশিত: জুলাই ২৩, ২০২১; সময়: ১১:৩০ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের দাপটের মধ্যেই আশার বাণী শোনালেন গবেষকরা। ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ফাইজার বায়োএনটেক ও অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার পূর্ণাঙ্গ দুই ডোজ কার্যকর বলে গবেষণায় প্রমাণ পাওয়ার দাবি করেছেন তারা। নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, ফাইজার বা অ্যাস্ট্রাজেনেকার দুই ডোজ ডেল্টার পাশাপাশি আলফা ধরনের বিরুদ্ধে সমান কার্যকর।

ভ্যাকসিনের মাধ্যমে বিশ্বের অধিকাংশ দেশ যখন করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছে তখন নতুন করে চোখ রাঙাচ্ছে ভারতীয় ডেল্টা ধরন। এর প্রকোপে আবারো ঊর্ধ্বমুখী আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার। এ অবস্থায় আশার বাণী শোনালেন ব্রিটিশ গবেষকরা। নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনার ডেল্টা ধরনের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দিতে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার দুই ডোজ ৮৮ শতাংশ কার্যকর। অন্যদিকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার পূর্ণাঙ্গ দুই ডোজ ৬৭ শতাংশ কার্যকর।

ডেল্টার আগে সবচেয়ে বেশি সংক্রামক বিবেচনা করা ব্রিটেনে শনাক্ত আলফা ধরনের বিরুদ্ধে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার দুই ডোজ ৯৩ দশমিক ৭ শতাংশ সুরক্ষা দিতে সক্ষম। আলফার বিরুদ্ধে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দুই ডোজ সুরক্ষা দেবে ৭৪ দশমিক ৫ শতাংশ। গবেষকেরা বলছেন, করোনা টিকার দুই ডোজ নেওয়ার পর আলফা ধরনের তুলনায় ডেল্টা ধরন থেকে সুরক্ষা পাওয়ার ব্যবধান খুব বেশি নয়।

ফাইজারের উদ্ভাবিত টিকার এক ডোজ ৩৬ শতাংশ সুরক্ষা দিতে পারে। অক্সফোর্ডের টিকার এক ডোজ সুরক্ষা দিতে পারে ৩০ শতাংশ। এর আগে গেল জুনে রাশিয়ার করোনার টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান স্পুটনিক-ভি দাবি করে, তাদের উৎপাদিত টিকার দুই ডোজ ডেল্টার বিরুদ্ধে ৯০ ভাগ সুরক্ষা দিতে সক্ষম।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে