‘যিনি বলবেন মুসলিমরা ভারতে থাকবে না, তিনি হিন্দু নন’

প্রকাশিত: জুলাই ৫, ২০২১; সময়: ১০:৩৩ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) প্রধান মোহন ভাগবত বলেছেন, হিন্দু মুসলিম ঐক্যই প্রধান। ভারতবাসীর পরিচয়, তিনি একজন ভারতীয়। কেউ যদি বলেন, মুসলিমদের ভারতে থাকা উচিত নয়, তাহলে তিনি হিন্দু নন।

তিনি বলেন, যে বা যারা গো-রক্ষার দোহাই দিয়ে গণরোষ তৈরি করে কাউকে কাউকে আক্রমণ করছেন, তারাও হিন্দুত্বের বিরোধী। মনে রাখতে হবে ভারতের হিন্দু, মুসলমান একই উৎস থেকে এসেছেন।

রোববার মুসলিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চের অনুষ্ঠানে আরএসএস প্রধান এসব কথা বলেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমস ও আনন্দবাজার।

মোহন ভাগবত বলেন, আমি ভোটের জন্য এসব কথা বলছি, এমন নয়। তিনি মনে করেন, গরু একটি পবিত্র প্রাণী। কিন্তু গো-রক্ষার কারণে যারা গণরোষ তৈরি করে অন্যকে আক্রমণ করছেন, তারা হিন্দুত্ব থেকে বিচ্যুত হচ্ছেন। আইন আইনের পথেই চলবে।

মুসলিমদের উদ্দেশে তিনি বলেন, মুসলিমরা ভারতে বিপদে আছেন, এই বক্তব্যের মধ্যে যে ফাঁদ তৈরি করা হচ্ছে, তাতে ভারতীয় মুসলিমরা পা দেবেন না।

তিনি মনে করেন, সাম্প্রদায়িক ঐক্য ছাড়া কখনোই দেশের প্রকৃত উন্নয়ন সম্ভব নয়। আর সেই জন্য জাতীয়তাবাদের প্রসার দরকার, দরকার দেশপ্রেম। ভারতের পূর্বপুরুষদের যে ঐতিহ্য তাকে রক্ষা করাই লক্ষ্য হওয়া উচিত। হিন্দু মুসলমানের ধর্মীয় মতের বিরোধ নিয়ে আলোচনা হতে পারে কিন্তু তা অনৈক্যের রূপ কখনোই যেন না নেয়।

সভামঞ্চে মোহন ভাগবত স্পষ্ট করে বলেন, আমরা গণতন্ত্রে বাস করি। এখানে হিন্দু বা মুসলিম, কারোরই প্রাধান্য থাকতে পারে না। এখানে প্রাধান্য পাবে শুধু ভারতীয়রা। আমাদের দেশকে শক্তিশালী করতে কাজ করতে হবে। সমাজের উন্নয়নে কাজ করতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে