আগস্টের শেষেই আফগানিস্তান ছাড়বে মার্কিন সেনারা

প্রকাশিত: জুলাই ৩, ২০২১; সময়: ১:১৮ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চলতি বছরের ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা ছিল যুক্তরাষ্ট্রের। তবে এর আগেই আগামী আগস্টের শেষ নাগাদ আফগানিস্তান ছাড়ছে মার্কিন সেনারা। গতকাল শুক্রবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর এএফপির।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জেন সাকি বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন মনে করেন, শুধু সামরিক উপায়ে আফগানিস্তানে যুদ্ধে জেতা সম্ভব নয়; সামরিক বাহিনী প্রত্যাহার করা হলেও যুক্তরাষ্ট্র আগামী দিনগুলাতেও আফগানিস্তানের নিরাপত্তা ও মানবিক সহায়তা প্রদানে কাজ করে যাবে।

আফগানিস্তানে যুদ্ধ শুরুর প্রায় দুই দশক পর যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর সেনারা দেশটির সবচেয়ে বড় বাগরাম বিমানঘাঁটি ত্যাগ করেছে। গতকাল এ তথ্য জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন। এর পরপরই হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে মার্কিন সেনাদের আফগানিস্তান ত্যাগের নতুন এ সময়সীমা জানাল হোয়াইট হাউস।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ফাওয়াদ আমান টুইটার বার্তায় বলেন, বাগরাম বিমানঘাঁটি থেকে মার্কিন ও সামরিক জোটের সব সেনা চলে গেছে। আফগান বাহিনী বিমানঘাঁটির নিরাপত্তার দায়িত্ব নেবে। তারাই সেখান থেকে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাবে।

তবে সবশেষ বিদেশি সেনা কবে, কখন বাগরাম বিমানঘাঁটি ছেড়েছে, সে সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট করে কিছু বলেনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর। এমনকি আফগান বাহিনীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে কবে এই বিমানঘাঁটি হস্তান্তর করা হবে, সে সম্পর্কেও কিছু জানানো হয়নি। আফগান তালেবান বাগরাম বিমানঘাঁটি থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারকে স্বাগত জানিয়েছে।

প্রায় দুই দশক ধরে চলা আফগান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান বিমানঘাঁটি ছিল বাগরাম। আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনী এত দিন রাজধানী কাবুল থেকে ৫০ কিলোমিটার উত্তরের এই বিমানঘাঁটি ব্যবহার করে আসছিল। আফগান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সংশ্লিষ্টতার সময় এই বিমানঘাঁটিতে হাজারো সেনার উপস্থিতি ছিল।

এখন আফগান যুদ্ধের ইতি টানার প্রক্রিয়া জোরেশোরে এগিয়ে নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। সেনা প্রত্যাহারের অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র গত ১ মের আগেই ছয়টি সামরিক ঘাঁটি আফগান বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেছে। এপ্রিলেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আফগান যুদ্ধের সমাপ্তি টানার ঘোষণা দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ১ মে থেকে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়ে ১১ সেপ্টেম্বরের আগে তা শেষ হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে