চীন-রাশিয়াকে ঠেকানোর মিশনে নামল ন্যাটো

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২১; সময়: ১:৩১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : এবার চীন ও রাশিয়াকে ঠেকানোর মিশনে নামল ন্যাটো। আর এই মিশনে বরাবরের মতোই যোগ দিল যুক্তরাষ্ট্র। এই দুটি দেশের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে কঠোর বার্তাও দিয়েছেন পশ্চিমা সামরিক জোটটির নেতারা।

সোমবার বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে শুরু হয়েছে ন্যাটো সম্মেলন। এতে বিশ্বে চীনের ক্রমবর্ধমান উত্থান ঠেকাতে সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে আরও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জোট প্রধান জেনস স্টেলটেনবার্গ।

তিনি বলেন, চীনের বিরুদ্ধে ন্যাটোকে আরও শক্তিশালী নীতি ও কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।

একদিন আগে রোববার কানাডার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ন্যাটো মহাসচিব জেনস স্টেলটেনবার্গ বলেন, চীনের সামরিক খাতের বাজেট বিশ্বে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দেশটির নৌবাহিনী বিশ্বে সবচেয়ে শক্তিশালী। চীন ধীরে ধীরে সামরিক খাতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে, যা ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোর নিরাপত্তার জন্য হুমকি।

ন্যাটো মহাসচিব জেনস স্টেলটেনবার্গ বলেন, চীন বিশ্বশান্তি রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নয়। হংকংয়ের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে হামলা চালিয়েছে চীন। আটক করা হয়েছে হংকংয়ের আন্দোলন কর্মীদের। অধিকার ক্ষুণ্ন করা হচ্ছে জিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর, কাজাখ ও অন্য সংখ্যালঘুদের। বন্দিশিবিরে আটকে রাখা হয়েছে সংখ্যালঘু মুসলিমদের।

একই সঙ্গে চীন আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নিজ দেশের নাগরিকদের নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। চীনের এমন আচরণকে মানবাধিকারের স্পষ্ট লঙ্ঘন বলছেন ন্যাটো প্রধান।

আট দিনের ইউরোপ সফরের অংশ হিসাবে সোমবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদর দপ্তর বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে এসে পৌঁছান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

পৌঁছেই রাশিয়া ও চীনের ব্যাপারে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। বলেন, ন্যাটোকে অবশ্যই এই দুই দেশের সৃষ্ট চ্যালেঞ্জের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে