ভারত-চীন টানাপোড়েন: শীতেও উত্তপ্ত থাকবে লাদাখ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০; সময়: ১০:৪০ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আপাত দৃষ্টিতে দেখে মনে হতে পারে শান্তি রয়েছে লাদাখে। কিন্তু শান্তির আড়ালেই চীন-ভারতের মধ্যে বিরাজ করছে তীব্র উত্তেজনা, যা খুবতাড়াতাড়ি প্রশমিত হবে না বলেই ধরে নিচ্ছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কর্তারা। ফলে আসছে শীতেও সীমান্তে চূড়ান্ত সতর্কতা বজায় রাখতে হবে- এমনটা ধরেই এগোচ্ছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

মস্কোয় দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং ওয়াং ই-এর মধ্যে বৈঠকের পর থেকেই টানা চার দিন প্যাংগং লেকের উত্তর দিকে ফিঙ্গার থ্রি এবং ফিঙ্গার ফোরের মধ্যবর্তী এলাকায় দু’ দেশেরই প্রায় দেড় থেকে দু’ হাজার সেনা মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। শনিবার রাতেও যা বদলায়নি।

নিরাপত্তা বাহিনীর এক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, ‘আপাতত স্থিতাবস্থা বজায় রাখা হচ্ছে৷ দুই বাহিনীর লোকালকম্যান্ডার মধ্যে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে যাতে উত্তেজনা আর না বাড়ে।’

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, মস্কোয় বৈঠকের পর থেকে দুই দেশের বাহিনীর মধ্যে ব্রিগেডিয়ার স্তরের বৈঠক হলেও সমাধান সূত্র বের হয়নি। অভিযোগ চীনের পক্ষ থেকে আলোচনায় সেনা পিছিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কথা না বলে কোন জায়গায় দুই দেশের কত সেনা রয়েছে, তার উপরই জোর দেওয়ার কৌশল নেওয়া হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় যাতে সেনা জওয়ানদের অসুবিধা না হয়, সেজন্য বিশেষ ধরনের তাঁবু-সহ সাজসরঞ্জাম পাঠানো শুরু হয়েছে লাদাখে। নভেম্বর- ডিসেম্বর মাসে লাদাখে তাপমাত্রা মাইনাস ৫০ ডিগ্রিসেলসিয়াস পর্যন্ত নেমে যেতে পারে। যে বিশেষ ধরনের তাঁবু পাঠানো হয়েছে, তার মধ্যে একসঙ্গে ৮ থেকে১০ জন সেনা থাকতে পারবেন।

এই তাঁবুগুলির মধ্যে বুখারি নামে একটি বিশেষ যন্ত্র থাকবে, যাতেসেনাদের তাঁবুর ভিতরে পর্যাপ্ত গরম থাকে। এর পাশাপাশি প্রচণ্ড ঠাণ্ডা থেকে বাহিনীর সদস্যদের রক্ষা করতে বিশেষ ধরনের জুতা এবং পোশাক কিনেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এই ধরনের পোশাক এবং সরঞ্জামই সিয়াচেনে মোতায়েন করা সেনাদের জন্য ব্যবহার করা হয়।

  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ যুবক নিহত
  • ‘সাবরা ও শাতিলায় ৫ হাজার ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে ইসরায়েল’
  • আফগান শিশুদের পরিচয়পত্রে যুক্ত হচ্ছে মায়ের নাম
  • জরুরি ভিত্তিতে বাংলাদেশে ২৫ হাজার টন পিঁয়াজ রফতানির অনুমোদন ভারতের
  • আল্লামা শফীর জানাজা শনিবার দুপুরে হাটহাজারীতে
  • নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তুলতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী
  • ডিবির প্রধান হলেন হাফিজ আক্তার
  • সোমবার থেকে দেশে বৃষ্টিপাত বৃদ্ধির সম্ভাবনা
  • নিবন্ধন সনদ জাল প্রমান হওয়ার পরও বহাল তবিয়তে প্রভাষক!
  • আল্লামা শফী আর নেই
  • পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমেছে
  • রাজশাহীতে নগর ও জেলায় ৪৬৬ মণ্ডপে দুর্গাপূজা
  • উপনির্বাচন কে ঘিরে চাঙা আ.লীগের নেতাকর্মীরা
  • রাজশাহীতে বাসের যাত্রীর পায়ুপথে হেরোইন, গ্রেপ্তার ২
  • অগ্রিম টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করা দরকার: জাতীয় পরামর্শক কমিটি
  • উপরে