বিদেশে অক্সফোর্ড টিকার ট্রায়াল বন্ধ, কেন্দ্রকে না জানানোয় শো-কজ হল ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০; সময়: ২:০১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অক্সফোর্ডের করোনা প্রতিষেধক প্রয়োগে ব্রিটেনে এক স্বেচ্ছাসেবক অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থগিত করা হয় প্রতিষেধকটির ট্রায়াল। আর বিদেশে অক্সফোর্ডের করোনা টিকার ট্রায়াল যে স্থগিত করেছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা, তা ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে জানায়নি সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া। আর একারণে সিরাম ইনস্টিটিউটকে শো-কজ করল কেন্দ্রীয় ড্রাগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এছাড়াও যেই কারণে ড্রাগ ট্রায়াল বন্ধ, তার কসালিটি অ্যানালিসিস রিপোর্টও দেয়নি সংস্থাটি। অক্সফোর্ড টিকার ট্রায়াল সফল হলে, ভারতে সেটা উৎপাদন করবে পুনের সংস্থাটি।

গতকাল বুধবার ভারতের ড্রাগ কনট্রোলার জেনারেল ভিজি সোমানি শো-কজ নোটিসে জিজ্ঞেস করেছেন কেন ক্লিনিকাল ট্রায়ালের দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের অনুমতি আপাতত প্রত্যাহার করা হবে না, যতদিন অবধি এটা নিশ্চিত হয় যে এটায় ক্ষতি হবে না।

এই সংক্রান্ত কোনও তথ্য সিরাম ইনস্টিটিউট দেয়নি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে কেন তাদের অনুমতি প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে না, সেই প্রশ্ন করা হয়েছে। কোনও উত্তর না দিলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও সতর্ক করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

করোনা যুদ্ধের ক্ষেত্রে বড়সড় উদ্বেগ তৈরি করে মঙ্গলবার সুইডিশ-ব্রিটিশ বায়োটেক সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানায়, একজন স্বেচ্ছাসেবকের অসুস্থতার কারণে ‘ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেট’-এর চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল স্থগিত রাখা হচ্ছে। অ্যাস্ট্রাজেনেকার মুখপাত্র মিশেল মেক্সেলের বিবৃতি উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানায়, টিকাকরণের প্রক্রিয়া স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থা। একটি স্বতন্ত্র কমিটি ‘সেফটি ডেটা’ (সুরক্ষাজনিত তথ্য) পর্যালোচনা করবে।

ব্রিটেনের এক স্বেচ্ছাসেবকের ‘সন্দেহজনক গুরুতর বিরূপ প্রতিক্রিয়া’-র জন্য কোথায় কোথায় ট্রায়াল স্থগিত রাখা হচ্ছে, সে বিষয়ে অবশ্য স্পষ্টভাবে কিছু জানানো হয়নি।

প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই আমেরিকা, ব্রিটেন, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ট্রায়াল বন্ধ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু ভারতে সেরকম কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার প্রশ্ন নেই বলেই জানিয়েছিল সিরাম। বুধবার তাদের তরফে বলা হয়, ‘আমরা ব্রিটেনের ট্রায়াল নিয়ে বেশি কিছু বলতে পারব না। তবে আরও পর্যালোচনার জন্য তা স্থগিত রাখা হয়েছে এবং শীঘ্রই আবারও শুরু করার আশা করা হচ্ছে। ভারতীয় ট্রায়াল চলছে এবং আমরা কোনওরকম সমস্যার সম্মুখীন হয়নি।’

সেই টিকার ট্রায়ালে ১০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের মধ্যে পুনের ভারতী বিদ্যাপীঠ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ৩৪ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কারোর কোনও শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়নি। গুরুত্বপূর্ণ শারীরিক মানদণ্ডও স্বাভাবিক আছে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ যুবক নিহত
  • ‘সাবরা ও শাতিলায় ৫ হাজার ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে ইসরায়েল’
  • আফগান শিশুদের পরিচয়পত্রে যুক্ত হচ্ছে মায়ের নাম
  • জরুরি ভিত্তিতে বাংলাদেশে ২৫ হাজার টন পিঁয়াজ রফতানির অনুমোদন ভারতের
  • আল্লামা শফীর জানাজা শনিবার দুপুরে হাটহাজারীতে
  • নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তুলতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী
  • ডিবির প্রধান হলেন হাফিজ আক্তার
  • সোমবার থেকে দেশে বৃষ্টিপাত বৃদ্ধির সম্ভাবনা
  • নিবন্ধন সনদ জাল প্রমান হওয়ার পরও বহাল তবিয়তে প্রভাষক!
  • আল্লামা শফী আর নেই
  • পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমেছে
  • রাজশাহীতে নগর ও জেলায় ৪৬৬ মণ্ডপে দুর্গাপূজা
  • উপনির্বাচন কে ঘিরে চাঙা আ.লীগের নেতাকর্মীরা
  • রাজশাহীতে বাসের যাত্রীর পায়ুপথে হেরোইন, গ্রেপ্তার ২
  • অগ্রিম টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করা দরকার: জাতীয় পরামর্শক কমিটি
  • উপরে