যুক্তরাজ্যে রোজা শুরু, প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৪, ২০২০; সময়: ১১:৪৭ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : যুক্তরাজ্যের মুসলিমরা আজ শুক্রবার থেকে রোজা রাখতে শুরু করেছেন। ব্রিটেনের ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা সৌদি আরবের সাথে মিল রেখেই রোজা রেখে থাকেন।

করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠে বিশ্রামে থাকা প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ব্রিটিশ মুসলমানসহ সারা পৃথিবীর মুসলমানদের রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এবার বিশ্বে রোজা শুরু হয়েছে করোনা মহামারির সময়ে। তাই বিশ্বের প্রতিটি দেশে মানুষের জীবন যাত্রা পাল্টে গেছে। এর প্রভাব পরেছে রমজান মাসেও। বাদ যায়নি ব্রিটেনের মুসলিমরাও।

যুক্তরাজ্যে সকল মসজিদ সাধারন মুসল্লিদের জন্য বন্ধ করা হয়েছে মাসাধিক কাল আগেই। প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ, এমনকি শুক্রবারের জুমার নামাজও মসজিদগুলোতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। এরই ধারাবাহিকতায় এবারই প্রথম রমজান মাসে মসজিদে তারাবির নামাজ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ব্রিটেনের ধর্মপ্রান মুসলিমরা। আর একারণে অনেক মুসল্লি আরও একটি রমজান মাস পাবার ফলে নিজেদেরকে ভাগ্যবান মনে করলেও হাজার হাজার মুসল্লি এক সাথে তারাবির নামাজ হতে বঞ্চিত হওয়ায় অন্তরে কষ্ট অনুভব করছেন।

ব্রিটেনের মুসলমান অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে এবার প্রতিবারের মতো রমজানে সাজ সাজ রব পরেনি। করোনার করাল গ্রাসে মানুষের মাঝে যে আতঙ্ক বিরাজ করছে তা প্রতিটি মানুষের চেহারায় স্পষ্ট। তবুও জীবন চালাতে হয় বলেই মানুষ বাইরে বের হচ্ছে অত্যাবশ্যকীয় কেনাকাটা করতে। প্রায় সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় চলছেন। অনেকেই মাস্ক ও গ্লাভস পরে দ্রুত নিজের কাজ সারছেন।

প্রতি বছর রমজান মাসের প্রথম দিন থেকেই ব্রিটেনের মুসলমানদের মধ্যে ইফতার মাহফিল এবং দোয়া আয়োজনের ব্যস্ততা দেখা যায়। কিন্তু সরকারি আদেশের কারণে এবারের চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন। সম্মিলিতভাবে কোনও তারাবি নেই, নেই কোনও ইফতার মাহফিলের আয়োজন। এ যেন এক অচেনা পরিবেশে মুসলমানদের সব চাইতে প্রিয় মাসটির আগমন।

তবে বেশিরভাগ ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মনে করছেন এই লৌকিকতার বাইরে বেশি সময় ইবাদতে নিয়োজিত থেকে পবিত্র কোরআন নাজেলের মাস থেকে আরও বেশি ফায়দা হাসিল করতে পারবেন।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ছাড়াও ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে ব্রিটিশ মুসলমানদের রমজান মাসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমি জানি মুসলমানদের জন্য এই মাসটি কত গুরুত্বপূর্ণ। এই রমজানে দেশের যেসব মুসলমান নাগরিকেরা ন্যাশনাল হেলথ সর্ভিসেসে এবং আর্মফোর্স সহ অন্যান কাজে নিয়োজিত আছে তাদের যে অসুবিধা হবে সেই জন্য আমরা দুঃখিত। আমরা জানি একসাথে ইফতার, তারাবি এবং ঈদ কতটা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু দেশের স্বার্থে এই ত্যাগ স্বীকার করায় তাদেরকে ধন্যবাদ।’

প্রধান বিরোধী দল লেবার দলের নেতা এবং ছায়া প্রধান মন্ত্রী কিয়ার স্টারমার ব্রিটিশ মুসলমানদের রমজান মাসের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‘রমজান আমাদেরকে যে শিক্ষা দেয় তা এই মহামারির দিনে আমাদের জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়া যে সব মুসলিম ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রথম কাতারে থেকে যুদ্ধ করছেন, তাদেরকে তিনি শুভকামনা এবং ধন্যবাদ জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • কুষ্টিয়ায় ফুটবল খেলা নিয়ে বিরোধে যুবক খুন
  • সিরাজগঞ্জে একদিনে ৭১ জনের করোনা শনাক্ত
  • বতসোয়ানায় দুই মাসে ৩৫০ হাতির রহস্যজনক মৃত্যু
  • দেহে অ্যান্টিবডি না থাকলেও সংক্রমণ ঠেকানো যাবে
  • করোনায় বহুপাক্ষিক উদ্যোগ নেওয়ার পরামর্শ সাবেক কূটনীতিকদের
  • ‘তিন দিনের মধ্যেই পাওনার পরিমাণ জানতে পারবেন শ্রমিকরা’
  • সিরাজগঞ্জে ভিজিডির ২৮ বস্তা চাল উদ্ধার
  • টেকনাফ স্থলবন্দরে জুনে ১৭ কোটি টাকার রাজস্ব আদায়
  • বেনাপোলে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশী নিহত
  • সকালে ছেলে ও বিকেলে মায়ের মৃত্যু
  • চাঁদপুরে করোনা উপসর্গে ২ জনের মৃত্যু
  • পাটকলের জন্য কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রী
  • উত্তর প্রদেশে দুর্বৃত্তের গুলিতে ৮ পুলিশ নিহত
  • মহামারির সময় যেসব দেশে যেতে পারবেন বাংলাদেশিরা
  • ‘করোনার ভ্যাকসিন পেতে আড়াই বছর লাগতে পারে’
  • উপরে