‘সন্ত্রাসীদের আশ্রয়দাতাদের তুরস্ককে সবক দেয়ার অধিকার নেই’

প্রকাশিত: মে ১২, ২০১৯; সময়: ১:০৩ pm |

ফাইল ফটো

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, ২০১৬ সালে তুরস্কের ব্যর্থ অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের যেসব দেশ আশ্রয় দিয়েছে, তাদের কোনো অধিকার নেই তুরস্ককে সবক দেয়ার।

ইস্তানবুলের নির্বাচন পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্তে তুরস্কের সুপ্রিম নির্বাচন কাউন্সিলের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে কয়েকটি পশ্চিমা দেশের সমালোচনার প্রতিক্রিয়ায় এরদোগান এ মন্তব্য করেন। খবর আনাদোলু ও ডেইলি সাবাহর।

শনিবার ইস্তানবুলে আয়োজিত একটি চ্যারিটির ৩৯তম ঐতিহ্যবাহী ইফতার অনুষ্ঠানে এরদোগান বলেন, ‘তুরস্ক একটি স্বাধীন, সার্বভৌম এবং গণতান্ত্রিক দেশ, যা আইনের শাসনে বিশ্বাস করে। তুরস্কে কারো একক ক্ষমতা নেই।’

এ সময় পশ্চিমা বিশ্বের সমালোচনা করে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, পশ্চিমাদের মানবিক মূল্যবোধের বিষয়গুলো তাদের প্রতি অনেককে আকৃষ্ট করেছিল, কিন্তু দুঃখজনকভাবে এখন সর্বদা তেল ও ডলারের প্রতি তাদের আগ্রহ দেখা যায়।

প্রসঙ্গত ৬ মে তুরস্কের সুপ্রিম নির্বাচন কাউন্সিল ইস্তানবুলের ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত মেয়র নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছে।

৩১ মার্চ তুরস্কের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সরকারিভাবে ইস্তানবুলের মেয়র নির্বাচিত হন বিরোধী জোটের প্রাথী একরেম ইয়ামওগলু। ক্ষমতাসীন জোটের প্রার্থী এবং এ দেশের ইতিহাসের সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম ১৩ হাজার ভোটে পরাজিত হন।

সরকারি দল একে পার্টি শুরু থেকেই ইস্তানবুলের নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করে আসছে। আগামী ২৩ জুন ইস্তানবুলের নির্বাচন পুনরায় অনুষ্ঠিত হবে।

মেয়র নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচনের ঘোষণা দেয়ায় এটিকে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। তিনি বলেন, পুনরায় নির্বাচন তুরস্কের গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে