চলতি মাসে আড়াই কোটি টিকা আসবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১; সময়: ১২:৪৩ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চলতি মাসে আড়াই কোটি ডোজ করোনা ভাইরাসের টিকা দেশে আসবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, যে আড়াই কোটি টিকা আসবে, তার মধ্যে ২ কোটি সিনোফার্মের, ৫০ লাখ ফাইজারের। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে এ বলেন মন্ত্রী।

১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও কারিগরি পরামর্শক টিমের অনুমোদন পেলে তাদেরকে টিকা দেওয়া হবে। এ জন্য অনুমোদন পেতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে আবেদন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত টিকা হাতে আসার পর ১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকা দেয়া হবে। কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালগুলো অন্য রোগীদের জন্য ছেড়ে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি। যদিও গতকাল রোববার ১৮ বছরের কমবয়সীদের কাউকে টিকা দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাদেরকে টিকা দেওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানানো হয়।

বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মাতৃ, নবজাতক ও শিশু স্বাস্থ্য কর্মসূচির পরিচালক ডা. মো. শামসুল হক বলেন, দেশের ১৮ বছরের কম বয়সীদের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ১২ বছরের বেশি বয়সীদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে কোনো পরিকল্পনা আপাতত নেই।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সব ক্ষেত্রে টিকার বয়সসীমা ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে। ১৮ বছরের কম বয়সীদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো পরিকল্পনা নেই। ১২ বছরের বেশি বয়সীদের মডার্না বা ফাইজারের টিকা দেওয়া হবে কী না, এটি করোনা বিষয়ক জাতীয় কমিটির সিদ্ধান্তের বিষয়। ভবিষ্যতে কোনো সিদ্ধান্ত হলে সেটি জানানো হবে।

শামসুল হক বলেন, করোনা বিষয়ক জাতীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৮ বছরের বেশি বয়সী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা হলে থাকেন তাদের টিকা দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে তাদের অনেকেই টিকা নিয়েছেন। ১৮ বছরের ঊর্ধ্বের যেসব শিক্ষার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্র নেই, তাদের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধনের মাধ্যমে যেন টিকা নিতে পারেন সে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজের মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের তথ্য অধিদপ্তরে আসতে হবে।

যদিও শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক এক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, ১৮ বছরের নিচে শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইজার এবং মডার্নার টিকা দেওয়া হতে পারে। এর আগে, ধবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্রের উপহার কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটিজের আওতায় ফাইজারের আরও ১০ লাখ করোনার টিকা দেশে এসে পৌঁছায়।

এটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশের জন্য পাঠানো ফাইজারের দ্বিতীয় চালান। এর আগে, গত ৩১ মে প্রথম এক লাখ ৬২০ ডোজ টিকা দেশে আসে।

  • 62
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে