রাজশাহীর ছয় জেলায় করোনার টিকা কার্যক্রম বন্ধ

প্রকাশিত: মে ২১, ২০২১; সময়: ২:৪৬ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : রাজশাহী বিভাগের আর আট জেলার মধ্যে ছয়টিতেই করোনার টিকা শেষ হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার (২০ মে) এসব জেলায় শেষ দিনের মত টিকা দেয়ার কার্যক্রম চলেছে। নতুন করে টিকা না এলে এসব জেলায় আর টিকা কার্যক্রম চলবে না।

এই ছয় জেলা হলো- রাজশাহী, নাটোর, নওগাঁ, জয়পুরহাট, পাবনা ও সিরাজগঞ্জ। চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও বগুড়ায় কিছু টিকা আছে। এসব জেলায় আরও কয়েকদিন টিকা কার্যক্রম চলতে পারে। বৃহস্পতিবার টিকা কার্যক্রম শেষে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘নতুন করে টিকা না আসা পর্যন্ত আজই আমাদের ছয় জেলায় টিকা কার্যক্রম শেষ। দু’একটি জেলায় দু’একটি করে ভায়াল থাকতে পারে। তা দিয়ে সারাদিনের কার্যক্রম চালানো যাবে না। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জে সামান্য কিছু টিকা আছে। এছাড়া বগুড়ায় কিছু বেশি পরিমাণ টিকা আছে। কারণ, গত মঙ্গলবার বগুড়ায় ৬০০ ভায়াল টিকা এসেছে। এক ভায়ালে ১০ জনকে টিকা দেয়া যায়। তাই সেখানে আরও কয়েকদিন চলবে।’

রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. কাইয়ুম তালুকদার বলেন, বৃহস্পতিবার শেষদিনে রাজশাহীর ৮৮৪ জনকে টিকা দেয়া হয়েছে। এর মধ্য দিয়েই রাজশাহীতে আপাতত টিকা প্রদান কার্যক্রম শেষ হলো। নতুন করে টিকা এলে আবার প্রয়োগ শুরু হবে। সে পর্যন্ত সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে।

ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার বলেন, ‘এখন তো প্রথম ডোজ টিকা দেয়া পুরোপুরি বন্ধ। কোন জেলায় যদি দু’এক ভায়াল থাকে, সেটা দ্বিতীয় ডোজ হিসেবেই দেয়া হবে। আমরা যে টিকা দিয়েছি, সেটা প্রথম ডোজ নেয়ার আট থেকে ১২ সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ নেয়ার নিয়ম। এখন নতুন করে কীভাবে দেয়া হবে সেটা গবেষকদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ঠিক করবে।’

স্বাস্থ্য বিভাগের এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিভাগের আট জেলায় ৬ লাখ ৬৪ হাজার মানুষ করোনার প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন। এর মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন প্রায় ৩ লাখ ৯২ হাজার জন। এখন প্রায় ২ লাখ ৭২ হাজার মানুষকে দ্বিতীয় ডোজ টিকার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে।

  • 228
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে