রাজশাহীর আট জেলার জন্য আইসিইউ মাত্র ২৩টি

প্রকাশিত: জুন ২৯, ২০২০; সময়: ৪:০০ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী বিভাগের আট জেলার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগিদের জন্য ভেন্টিলেটার সুবিধাসহ আইসিইউ বেড রয়েছে ২৩টি। এর মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ১৫টি এবং বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ৮টি। এর মধ্যে সোমবার দুপুর পর্যন্ত রামেক হাসপাতালের ১৫টির মধ্যে ১০টি ফাঁকা পড়ে রয়েছে।

এছাড়াও বিভাগের আট জেলায় আইসোলেশন বেড রয়েছে ১৬২০টি। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগি রয়েছে ৫৬২ বেডে। ফাঁকা পড়ে রয়েছে ১০৫৮ বেড। সোমবার দুপুরে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তারের পরিচালক ডা. গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, জানান, সোমবার সকাল পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫২৫৮ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৭৩ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১০৪৫ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪১৪০ জন। এর মধ্যে হাসপাতাল আইসোলেশনে ৫৬২ জন। বাকিরা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ডা. গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য বলেন, রাজশাহী বিভাগের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় সরকারি হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা রোগিদের চিকিৎসার জন্য আইসোলেশন শয্যা রাখা হয়েছে। বিভাগের মোট আইসোরেশন শয্যার সংখ্যা ১৬২০টি। এর মধ্যে সোমবার সকাল পর্যন্ত ৫৬২ শয্যায় রোগি ভর্তি রয়েছেন। ফাঁকা রয়েছেন ১০৫৮টি।

তিনি বলেন, রাজশাহী বিভাগের দুইটি হাসপাতালে করোনা রোগিদের জন্য ২৩টি আইসিইউ শয্যা রয়েছে। এর মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৫টি এবং বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ৮টি।

এদিকে, রাজশাহী সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক বলেন, রাজশাহী জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৭১ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত রাজশাহী নগরে ৩৮১ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মারা গেছেন সাতজন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৬৮ জন। রাজশাহীতে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪৯৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগি। এর মধ্যে পাঁচজন প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

তিনি বলেন, রাজশাহীতে আইসোলেশন বেড রয়েছে ২৯৫টি। রাজশাহীর নয়টি উপজেলায় ১১৫টি। আর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মিশন হাসপাতাল ও সংক্রমক ব্যাধি হাসপাতাল মিলে ১৮০টি আইসোলেশন বেড রয়েছে।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বলেন, সোমবার সকাল পর্যন্ত রাজশাহীতে আইসোলেশন বেডে রোগি রয়েছে পাঁচজন। ফাঁকা রয়েছে ২৯০টি বেড। আর রাজশাহীতে ভেন্টিলেটার সুবিধাসহ আইসিইউ ১৫টি বেড রয়েছে। এর মধ্যে সোমবার পর্যন্ত পাঁচটি বেডে রোগি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকি ১০টি বেড খালি রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে