ভারত ছাড়তে আদালতের অনুমতি চাইলেন জ্যাকুলিন

প্রকাশিত: মে ১১, ২০২২; সময়: ৪:৩৬ pm |
খবর > বিনোদন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক :  কথায় আছে সৎ সঙ্গে স্বর্গবাস আর অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ। তেমনটাই হয়েছে বলিউড তারকা জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের সঙ্গে। ঘনিষ্ঠজন সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিরুদ্ধে ২০০ কোটি রুপি প্রতারণার মামলায় উঠে এসেছে তার নাম। সুকেশের সঙ্গে বেশ দহরম মহরম ছিল এই অভিনেত্রীর। তার সঙ্গে ঘুরে বেড়াতেন, তার দেওয়া উপহার সামগ্রী নিতেন তিনি। সেই ধারাবাহিকতায় গেল বছর নিতে হয়েছে অপরাধের দায়ভারও।

তারপর থেকেই রাহু জুটেছে জ্যাকুলিনের ভাগ্যে। ইতোমধ্যেই আদালতে বেশ কয়েকবার ডাক পড়েছে এই অভিনেত্রীর। সম্প্রতি আবার আদালতের দ্বারস্থ হতে হলো তাকে।

জ্যাকুলিনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল আদালত। কিন্তু দেশ ছাড়তে হবে জ্যাকুলিনকে। কেননা, আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইফা অ্যাওয়ার্ড। সেখান থেকে ডাক পড়েছে তার। সেই ডাকে সাড়া দিতেই আদালতের অনুমতি নিতে গিয়েছিলেন এই তারকা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, আদালতের নিকট ১৫ দিনের জন্য দেশত্যাগের অনুমতি চেয়েছেন জ্যাকুলিন। কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন আইফা অ্যাওয়ার্ডের কথা। তবে শুধু আবুধাবিতেই কাটাবেন না এই অভিনেত্রী। তেমনটাই উল্লেখ করেছেন আদালতে। আবুধাবির পাশাপাশি ফ্রান্স ও নেপালে যাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগেও একবার দেশত্যাগের সময় নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে হয়েছিল জ্যাকুলিনকে। গতবছর দুবাইয়ের উদ্দেশে উড়াল দেওয়ার মুহূর্তে বিমানবন্দরে আটকানো হয়েছিল তাকে। জেরা করা হয়েছিল সুকেশের ব্যাপারে।

সম্প্রতি কথিত প্রেমিক সুকেশ চন্দ্রশেখরের বিষয়ে মুখ খুলেছেন জ্যাকুলিন। তিনি জানিয়েছেন, সুকেশের সঙ্গে তার পরিচয় হয়েছিল কাকার শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠানে। তারপর থেকে বাড়ে ঘনিষ্ঠতা। সেই সূত্রে সুকেশের ব্যক্তিগত বিমানও ব্যবহার করতেন তিনি। সে বিমানে করে তিনি উড়ে বেড়িয়েছেন কেরালা, চেন্নাইসহ অনেক জায়গায়।

আদালতের জেরার মুখে পড়ে তাকে এসবের পাশাপাশি বলতে হয়েছে আরও অনেক কিছু। গোপন রাখতে পারেননি সুকেশের নিকট থেকে নেওয়া উপহারাদির কথাও। জ্যাকুলিন জানান, দামি সব উপহার দিতেন সুকেশ। এর মধ্যে গুচ্চির ব্যাগ, পোশাকাদি, লুই ভিতোঁর জুতো উল্লেখযোগ্য।

তবে সুকেশ যা দিয়েছেন তার সবই যে জ্যাকুলিন নিয়েছেন তা কিন্তু না। ফিরিয়েও দিয়েছেন কিছু উপহার। সুকেশ একটি ছোট কুপার পাঠিয়েছিলেন তার জন্য। কিন্তু এই অভিনেত্রী তা গ্রহণ করেননি।

তবে সেসব ছাপিয়ে এই অভিনেত্রী এখন চিন্তায় আছেন তার দেশত্যাগ নিয়ে। ওদিকে আইফা অ্যাওয়ার্ড শুরু হতেও বেশি দেরি নেই। এর মধ্যে যদি আদালতের মন গলে তবেই দিন পনেরোর জন্য জ্যাকুলিন ঘুরে আসতে পারবেন আবুধাবি, ফ্রান্স ও নেপাল। আর যদি মন না গলে তাহলে আইফায় যোগ দেওয়াও হবে না তার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে