টেনিস থেকে অবসরের ঘোষণা সানিয়া মির্জার

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২২; সময়: ৪:৪৬ pm |
খবর > বিনোদন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চলতি মৌসুম শেষেই টেনিসকে বিদায় বলবেন ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। খবরটি নিশ্চিত করেছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভি।

ভারতীয় এই টেনিস তারকা আজ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নেমেছিলেন নারী দ্বৈতের লড়াইয়ে। তবে যাত্রাটা থেমে গেছে সেখানেই। ইউক্রেনীয় সঙ্গী নাদিয়া কিচেনকের সঙ্গে মিলে এড়াতে পারেননি হার। স্লোভেনিয়ান তামারা জিদানেস্ক ও কাইয়া ইয়ুভানেস্কের কাছে হেরেছেন সরাসরি সেটে; ৪-৬, ৬-৭ গেমে।

অজি ওপেনের নারী দ্বৈত থেকে এমন বিদায়ের পেছনে সানিয়ার দায়টা অবশ্য কমই। শুরু থেকেই একের পর এক আনফোর্সড ইরোরে কাজটা কঠিন করে তুলেছিলেন কিচেনক। তাতেই অবধারিত হারের মুখে পড়েছেন সানিয়া।

অস্ট্রেলিয়ান মুল্লুকে তার যাত্রাটা অবশ্য এখানেই শেষ হয়ে যায়নি। আমেরিকান রাজীব রামের সঙ্গে মিলে তিনি লড়বেন মিশ্র দ্বৈতেও।

নারী দ্বৈতের এই হারের পরই মূলত বিদায়ের ঘোষণাটা দিয়েছেন সানিয়া। জানিয়েছেন চলতি ২০২২ মৌসুমটাই হবে তার শেষ, এরপরই টেনিস র‍্যাকেটটা তুলে রাখবেন তিনি।

বলেছেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এটাই হতে যাচ্ছে আমার শেষ মৌসুম। আমি এবার প্রতি সপ্তাহ ধরে ধরে এগোনোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পুরো মৌসুম খেলতে পারব কিনা নিশ্চিত নই আমি।’

২০০৩ সাল থেকে পেশাদার টেনিসে খেলছেন তিনি। এরপর টানা ১৯ বছর ধরে টেনিসের শীর্ষ পর্যায়ে খেলছেন হায়দরাবাদি এই টেনিস সেনসেশন। দ্বৈত র‍্যাঙ্কিংয়ে এক সময়ের বিশ্বসেরা তিনি, জিতেছেন ছয়টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপাও।

একক লড়াইয়েও সানিয়ার পরিসংখ্যানটা নেহায়েত মন্দ নয়। ২০০৭ সালে টেনিস র‍্যাঙ্কিংয়ের ২৭তম অবস্থানে এসেছিলেন তিনি, যার ফলে ভারতের ইতিহাসে সর্বোচ্চ র‍্যাঙ্কিংধারী নারী টেনিস খেলোয়াড় বনে যান সানিয়া।

সভেতলানা কুজনেৎসোভা, ভেরা জনারেভারা, মারিওন বারতোলি, সাবেক বিশ্বসেরা টেনিস তারকা মার্টিনা হিঙ্গিস, দিনারা সাফিনা, ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাদের বিপক্ষে দারুণ কিছু জয়ও আছে তার ঝুলিতে। তবে কবজির বড়সড় এক চোট তার একক ক্যারিয়ারটাকে আর বড় হতে দেয়নি।

ভারতের ইতিহাসে মাত্র দুইজন নারী টেনিস তারকা ডব্লিউটিএ শিরোপা জিতেছেন, তার মধ্যে একজন সানিয়া। টেনিস র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ১০০-তে পৌঁছানো একমাত্র ভারতীয় টেনিস তারকা তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে