কিছু সময় কিছুই না করাটাও জরুরি

প্রকাশিত: মার্চ ২০, ২০২১; সময়: ১:০৩ pm |
খবর > বিনোদন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চলচ্চিত্রে ১৬ বছর পার করেছেন দক্ষিণ ভারতের তারকা অভিনেত্রী তামান্না ভাটিয়া। ১৫ বছর বয়সে চান্দ সা রোশান চেহরা ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় আসেন তিনি। এখন পর্যন্ত অভিনয় করেছেন ৬৪টি সিনেমায়। আর এই মুহূর্তে তামান্না দক্ষিণ ভারতের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রী।

ফিটনেস আইকন হিসেবেও খ্যাতি আছে তামান্নার। ১৯৮৩ সালের রিমেক হিম্মতওয়ালার মাধ্যমে ২০১৩ সালে হিন্দি সিনেমায় অভিষেক হয় তাঁর। হানড্রেড পারসেন্ট লাভ, রেবেল, হামশাকালস, এন্টারটেইনমেন্ট, টুটাক টুটাক টুটিয়া, বাহুবলী সিনেমাগুলোর মাধ্যমে কেবল দক্ষিণ ভারতেই নয়, ভারতবর্ষের প্রথম সারির তারকাদের তালিকায় উঠে এসেছেন তিনি। সম্প্রতি এক ‘ভার্চ্যুয়াল হোম ট্যুরে’ নিজের বাড়ি ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন ভক্তদের।

বেশির ভাগ সময়ই শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকেন তামান্না। দেশ–বিদেশ ঘুরে বেড়াতে হয় তাঁকে। তবে বাড়িই তাঁর কাছে সবচেয়ে শান্তির জায়গা। কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে থাকা একদমই পছন্দ করেন না তিনি। তামান্না বলেন, ব্যস্ত জীবনে বাড়িতে ফিরে কিছুটা সময় কিছুই না করাটাও জরুরি। তাই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে নিজের হাতে সাজিয়েছেন এই তারকা। তামান্নাদের বাড়িতে আছে দেশি–বিদেশি চিত্রকর্ম। একটি দেয়ালজুড়ে ভাইয়ের স্ত্রীর আঁকা গৌতম বুদ্ধের ছবি। দেয়াল আর পর্দাজুড়ে সাদার আধিক্য চোখে পড়ে। সাদা নাকি মন প্রশান্ত করে তামান্নার। তাঁর রয়েছে বিশাল একটি মেকআপ করার ঘর। শোবার ঘরের বিছানার সঙ্গে রয়েছে একটি অতিকায় ছবি, হাসিমুখের তামান্না আর তাঁর মা–বাবা।

মা–বাবার সঙ্গেই থাকেন তামান্না। কাজ ছাড়া তাঁদের সঙ্গে আড্ডা দিতে ভালোবাসেন তিনি। একসঙ্গে রাতের খাবার খান তাঁরা। তাঁদের সঙ্গে থাকে পেবলেস নামে একটি কুকুর। কাজ থেকে বাড়িতে ফিরে সেই কুকুরের সঙ্গেই সময় কাটে তাঁর।

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে