কুয়াশা থেকে বনি ভাই হয়ে উঠার গল্প

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৮, ২০১৯; সময়: ৭:৪৬ pm |
খবর > বিনোদন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বনি ভাই, এলাকার বখাটেদের আইকন স্টার। কোন এক কুয়াশা ভরা ভোরে পৃথিবীতে এসেছিল বলে বাবা-মা শখ করে নাম রেখেছিলেন কুয়াশা। কিন্তু আরও ১৯টি কুয়াশা মোড়া শীত পেরিয়ে কলেজ ড্রপ আউট এলাকার বড় ভাই হওয়ার পর সে নাম আর ধূপে টিকলো না।

সাত সকালে চায়ের আড্ডায় সঙ্গী বাবু আর কিসলুর সাথে যাবতীয় বাউন্ডুলেপনা। সারদিন অহেতুক বাইকে টহল দিয়ে এলাকাবাসীর বিরক্তি আরও পাকাপোক্ত করা। আর রাতের আঁধারে গ্যারেজের এক কোনে সিগারেটের ধোঁয়ায় কষ্টগুলো বাষ্প করে দেওয়া। কিন্তু কে জানতো এই বখাটের জীবনেও একদিন প্রেম আসবে।

পাওয়া না পাওয়ার গল্পে ২০১৬ সালের আজকের এই দিনে (৮ ডিসেম্বর) প্রকাশিত হয়েছিল স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘বখাটে’। এখন পর্যন্ত অনেক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রকাশিত হলেও এই চলচ্চিত্রটির মত দর্শকদের মনে দাগ কাটতে পারে নি। তিন বছর পার হলেও এখনও দর্শকদের মুখে মুখে ফিরছে বখাটের নাম। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছিলেন সিয়াম আহমেদ ও মুমতাহিনা টয়া। এছাড়াও ছিলেন সোহাগ, রাকিব, শিবলু, আরিফ,অনন্ত, উর্মি ও পপি প্রমুখ। এটির গল্প, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন স্বরাজ দেব।

চলচ্চিত্রটিতে বনি ভাইয়ের চরিত্রে দেখা গিয়েছে সিয়াম আহমেদকে। এই চলচ্চিত্রটির পর সিয়াম আহমেদের ক্যারিয়ারই যেন পাল্টে গেল। সিয়াম ও টয়ার ক্যারিয়ারে একটি দুর্দান্ত টার্নিং বলা যায় এই চলচ্চিত্রটি। দর্শকদের ভালোবাসায় সিয়াম হয়ে উঠেন বনি ভাই। বনি ভাই খ্যাত এই সিয়াম এরপর তার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ব্যস্ত সময় পার করেছেন। শুধু তাই নয় নাম লিখিয়েছেন চলচ্চিত্রে। প্রথম ছবি ‘পোড়ামন ২’ দিয়ে রীতিমত বাজিমাত করেন এই নায়ক। বনি ভাই খ্যাত এই অভিনেতা অল্প সময়েই দর্শক মন জয় করে হয়ে উঠেন ‘পোড়ামন ২’ খ্যাত চলচ্চিত্র নায়ক।

বনি ভাই খ্যাত এই অভিনেতা বখাটে নিয়ে বলেন, ‘বখাটে’ কাজটা আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে মেমোরেবল একটা কাজ। এই কাজটা আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে। অনেক ভালোবাসা আর সাপোর্ট পেয়েছি এটা থেকে। দেব, টয়া থেকে শুরু করে এই টিমের সবার প্রতি আমার অনেক ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞতা। এখনও দর্শকরা এই কাজটা মনে রেখেছেন। সবার প্রতি ভালবাসা। বখাটে আমার ক্যারিয়ারের একটা বেঞ্চমার্ক হয়ে থাকবে।

টাইগার মিডিয়া প্রযোজিত ‘বখাটে’ চলচ্চিত্রটি এরইমধ্যে দেখেছেন ১ কোটি ৫ লক্ষ ৯৫হাজারেরও বেশি মানুষ। শুধু তাই নয়, চলচ্চিত্রটির ‘চলনা সুজন’ গানটি দর্শক মহলে ব্যাপক জনপ্রিয়তা কুড়ায়। সজিব রানা ও সালমার কন্ঠে গাওয়া এই গানটি এরইমধ্যে দেখেছেন ২ কোটি ৫ লক্ষ ৯৮ হাজারেরও বেশি মানুষ।

তিন বছর পেরিয়ে এখনও চলচ্চিত্রটি দর্শকদের মুখে মুখে। এই বিষয়ে নির্মাতা স্বরাজ দেব বলেন, বখাটে শুধু একটা গল্প নয়, এটা আমাদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন। ২০১৬ সালের আজকের এই দিনে এটি প্রকাশিত হয়েছিল। এখনও কাজটির জন্য সবার কাছ থেকে ভালোবাসা পাচ্ছি, এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। এটির সাফল্যের সঙ্গে কলাকুশলী থেকে শুরু করে আমার টিমসহ অনেকেই জড়িত। সবার পরিশ্রমের ফলেই এটি সম্ভব হয়েছে। বিশেশ করে এই গল্পের বনি ভাই, যিনি এখন একজন সফল চলচ্চিত্র তারকা। সবার পরিশ্রমের সার্থকতাটা এখন দর্শকদের ভালবাসার মাধ্যমে পাচ্ছি। এখনও দর্শকরা সংশ্লিষ্ট সবাইকে কাজের স্বীকৃতিটা দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বখাটের পর নতুন করে গল্প নিয়ে ভাবছি। এর সাফল্যের পর খুব শিগগিরই নতুন প্রজেক্ট নিয়ে আসছি। এখন পর্যন্ত বখাটেই সবচেয়ে সফল একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। সেই জায়গা থেকে এটার একটা সিক্যুয়েল নির্মাণের কথা ভাবছি আমরা। খুব শীঘ্রই হয়তো জানাতে পারবো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে