নামমাত্র লভ্যাংশ বাড়াল তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্স

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৩, ২০২২; সময়: ১২:৩৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের কোম্পানি তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। ২০২১ সমাপ্ত বছরের জন্য এ লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার (১৩ এপ্রিল) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ওয়েবসাইটে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সভায় জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ সালের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা ও অনুমোদনের পর লভ্যাংশ সংক্রান্ত এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ডিএসইর তথ্য মতে, ২০২১ সালে তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) দাঁড়িয়েছে ২ টাকা ২৫ পয়সা। সেখান থেকে ৪ কোটি ২৫ লাখ ৮৬ হাজার ৯৭৭ শেয়ারহোল্ডারদের শেয়ার প্রতি ১ টাকা ১০ পয়সা করে দেবে কোম্পানিটি।

বাকি টাকা কোম্পানির অন্যান্য খাতে ব্যয় করবে। অর্থাৎ কোম্পানিটি আগের বছরের তুলনায় শেয়ার প্রতি ৬০ পয়সা করে মুনাফা বাড়ালেও লভ্যাংশ বেড়েছে মাত্র ১০ পয়সা। করোনার প্রথম বছরের তুলনায় দ্বিতীয় বছর নামমাত্র লভ্যাংশ বাড়াল কোম্পানিটি।

এর আগের বছর ২০২০ সালে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছিল ১ টাকা ৬৫ পয়সা। সেখান থেকে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল বিমা কোম্পানিটি।

অর্থাৎ শেয়ার প্রতি ১ টাকা করে লভ্যাংশ দিয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটি ২০১৯ সালেও ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

পরিচালনা পর্ষদ ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) দিন নির্ধারণ করা হয়েছে ২৩ জুলাই।

ওইদিন ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে বেলা ১১টায় কোম্পানির এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ মে ।

৩১ ডিসেম্বর ২০২১ সময়ে সমন্বিতভাবে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য ছিল ১৯ টাকা ১৫ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১৭ টাকা ৯৭ পয়সা।

লভ্যাংশ ঘোষণা উপলক্ষে আজ শেয়ারটির দর সীমা ওপেন করা হয়েছে। অর্থাৎ শেয়ারটির দাম ইচ্ছেমতো বসাতে পারবেন বিনিয়োগকারীরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে