ইমাম বাটনের শেয়ারের দাম বেড়ে দ্বিগুণ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১; সময়: ৪:১০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : এক দশক বছর ধরে উৎপাদনহীন, তারপরও বাড়ছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ইমাম বাটন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ারের দর। গত চার মাসে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বেড়েছে দ্বিগুণ। আর তাতে মাত্র সাত কোটি টাকার কোম্পানির বাজার মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৩ কোটি টাকা।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তথ্য মতে, চলতি বছরের ৫ মে শেয়ারটির দাম ছিল ১৯ টাকা ১০ পয়সা। সেখান থেকে চার মাসে ২৪ টাকা বেড়ে ৪৩ টাকা ৫০ পয়সা হয়েছে। শেয়ারটির দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য আছে কি না জানতে চেয়ে কোম্পানিটিকে চিঠি দিয়েছে ডিএসই কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) ডিএসইকে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোম্পানির শেয়ারের দাম বৃদ্ধির কোনো কারণ জানা নেই। এমনকি কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই তাদের কাছে। কোম্পানিটির শেয়ারের দাম সবচেয়ে বেশি বেড়েছে গত ১৮ আগস্ট থেকে। ওই দিন কোম্পানিটির শেয়ারের দাম ছিল ৩১ টাকা ২০ পয়সা। সেখান থেকে রোববার কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বেড়ে ৪৩ টাকা ৫০ পয়সায় লেনদেন হয়েছে। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম ১২ টাকা ৩০ পয়সা বা ৩৯ শতাংশ বেড়েছে।

পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কারসাজি চক্র পরিকল্পিতভাবে দশ বছর ধরে উৎপাদনহীন কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়াচ্ছে। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের উচিত এর পেছনে কারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দিয়েছিল। এরপর গত ১০ বছরের কোনো লভ্যাংশ দেয়নি। বর্তমানে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে কোম্পানির ৩০ শতাংশ শেয়ার রয়েছে, বাকি শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে