লকডাউনেই দোকান খুলতে চায় রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

প্রকাশিত: আগস্ট ৪, ২০২১; সময়: ১১:৩১ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে দোকানপাট খোলার দাবি জানিয়েছে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার দুপুরে দোকান মালিক সমিতি রাজশাহী শাখার পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি জানানো হয়েছে। আগামী ৫ আগষ্টের পর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট খোলারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যবসায়ী নেতারা।

একই সাথে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির আগামী ৫ আগস্টের পর ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট ও দোকানসমূহ খোলা রাখার দাবির প্রতি সমর্থন জানান রাজশাহীর ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। এ জন্য সরকারের সার্বিক সহযোগিতা চাওয়া হয়।

সাংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ লকডাউনে বিগত দিনের ক্ষতির বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, টানা লকডাউনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সবকিছু বন্ধ থাকায় রাজশাহীর ব্যবসায়ীদের পথে বসার উপক্রম হয়েছে। অনেক ব্যবসায়ীর বাড়িতে চুলা জ¦লছে না। পুঁজি হারিয়ে আজ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। ক্ষুদ ব্যবসায়ীদের মাথায় ভাড়ার খড়ক ঝুলছে।

শুধু তাই নয়, দোকানপাটে যে মালামাল রয়েছে তা পড়ে নষ্ট হচ্ছে। লকডাউনের কারণে তারা চুতরমুখি সমস্যায় পড়েছেন। এই অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট পরিচালনা করার অঙ্গিকার বদ্ধ তারা। আগামী ৫ আগস্টের পর দোকানপাট খুলতে না দিলে তারা আরো কঠোর অবস্থানে যাবে বলেও হুশিয়ারি দেন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি রাজশাহী শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি গোলাম সারওয়ার স্বপন, দোকান মালিক সমিতি রাজশাহী শাখার সহসভাপতি মো. ইব্রাহীম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন, রাজশাহী নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নুরুন্নবী লুলু, সাধারণ সম্পাদক মনজুর হোসেন চুমকুু, বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি রাজশাহী শাখার সভাপতি আলহাজ্জ রিয়াজ আহম্মেদ খান।

এছাড়াও ইলেকট্রিক ব্যবসায়ী সমিতির রাজশাহী শাখার সভাপতি জয়নাল আবেদীন চাঁন্দ, রাজশাহী জেলা স্টেডিয়াম মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি শেখ মোহাম্মদ রেজাউর রহমান দুলাল, সাহেব বাজার বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামিম আলম, বাংলাদেশ টাইল্স এন্ড মোজাইক মার্চেন্ট এসোসিয়েশন, রাজশাহী শাখার সভাপতি আনসার আলী, হড়গ্রাম বাজার ও নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ফিরোজ আক্তার লালন, ইলেক্ট্রনিক্স ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি আলহাজ্জ আজম, শিরোইল স্টেশন কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশিক হাসান সুজন, রাজশাহী ইলেক্ট্রনিক্স টেকনিশিয়ান সমিতির সাধারণ সম্পাদক শরিফ উদ্দীন।

নওদাপাড়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সাহেব আলী ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, রাজশাহী ডেকোরেটর মালিক সমিতির সভাপতি এনতাজ আলী, বৃহত্তর লক্ষীপুর বাজার দোকান মালিক ও ব্যবসায়ী সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক বাইতুল ইসলাম, ভদ্রা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি আব্দুস সাত্তার, শালবাগান বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সেলুন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. আবুল, সাধারণ সম্পাদক মানিক, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি জামিলুর রহমান ও সহসভাপতি আলী নওয়াব স্বপনসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  • 3.3K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে