বাজেটে আড়াই কোটি নতুন দরিদ্র উপেক্ষিত

প্রকাশিত: জুন ৩, ২০২১; সময়: ৭:৪১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আগামী অর্থবছরে (২০২১-২২) সামাজিক নিরাপত্তা খাতে ১৩ শতাংশ বা প্রায় ১২ হাজার কোটি বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, নতুন করে এর আওতায় আসছেন ১৪ লাখ নাগরিক। কিন্তু, নতুন করে দরিদ্র হওয়া বাকি আড়াই কোটি নাগরিককে সাহায্যের ব্যাপারে বাজেটে কিছুই উল্লেখ করা হয়নি।

সামাজিক সুরক্ষা বেষ্টনীর মোট বরাদ্দকৃত অর্থের একটি বড় অংশ ভাতা হিসেবে পাবেন বয়োবৃদ্ধ, বিধবা, শারীরিকভাবে অক্ষম ও সহায়সম্বলহীন জনগোষ্ঠী। এক্ষেত্রে সুবিধাপ্রাপ্তদের সংখ্যা বাড়লেও তাদের স্বতন্ত্র ভাতার পরিমাণ বাড়েনি।

বিদ্যমান সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় থাকাদের সঙ্গে অতিরিক্ত আরও আট লাখ বয়োবৃদ্ধ, ৪.২৫ লাখ বিধবা ও সহায়সম্বলহীন নারী এবং ২.০২ লাখ শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তি এই কর্মসূচির আওতায় আসছেন। শ্রেণি বিভাজন অনুসারে তারা মাসিক ৫০০ থেকে ৭৫০ টাকা ভাতা পাবেন।

বর্তমানে মোট ৯৮ লাখ জন এসব ভাতা পাচ্ছেন।

তবে সিংহভাগ অর্থ যাবে সাবেক সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবসর ভাতা প্রদান, সঞ্চয়পত্রের সুদ এবং এমনকি প্রণোদনার জন্য দেওয়া ঋণের সুদ সমন্বয়ে। এসব প্রণোদনা ঋণ পেয়েছিলেন বড় বড় ব্যবসায়ীরাই।

সামাজিক সুরক্ষা জালের আওতায় থাকা দুই লাখ মুক্তিযোদ্ধার ভাতা অবশ্য বেড়েছে। আগে তারা ১২ হাজার টাকা করে পেলেও প্রস্তাবিত বাজেটে জনপ্রতি ২০ হাজার টাকা করা হয়েছে, এজন্য বাড়তি ২,০০০ কোটি টাকার প্রয়োজন হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে