চলতি বছরের জন্য অর্ধেক করা হলো ব্যাংক হিসাব রক্ষণাবেক্ষণ খরচ

প্রকাশিত: এপ্রিল ১১, ২০২১; সময়: ৯:৫২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ক্ষুদ্র আমানতকারীদের আর্থিক প্রণোদনা ও ব্যাংক আমানত উৎসাহী করার লক্ষ্যে শুধুমাত্র চলতি বছরের জন্য ব্যাংক হিসাব রক্ষণাবেক্ষণ খরচ বা অ্যাকাউন্ট মেইনটেনেন্স ফি অর্ধেক করলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

২০২১ সালে যদি কারো সঞ্চয়ী হিসাবে (সেভিংস একাউন্ট) গড়ে ১০ লাখ বা তার কম টাকা থাকে তাহলে সেই আমানতকারী এই সুবিধা পাবেন। চলতি বা কারেন্ট অ্যাকাউন্ট এর ক্ষেত্রে এই সুবিধা প্রযোজ্য নয়।

আজ রোববার (১১ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং রেগুলেশন এন্ড পলিসি ডিপার্টমেন্ট (বিআরপিডি) এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে।

এতে বলা হয়, কোভিড এর কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে আমানতকারীদের ব্যাংকমুখো করা এবং ক্ষুদ্র আমানতকারীদের প্রণোদিত করতেই এই উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

নির্দেশনায় বলা হয়, বর্তমানে সঞ্চয়ী হিসাবের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধাপের জন্য ব্যাংকগুলো প্রতি ছয় মাস অন্তর দুই বার হিসাব রক্ষণাবেক্ষণ খরচ কেটে নেয়। কিন্তু, চলতি বছরের জন্য এক বার ফি কাটতে পারবে। অর্থাৎ আমানতকারীদের জন্য এ বাবদ খরচ অর্ধেক করা হলো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ব্যাংকাররা বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উদ্দেশ্যকে তারা স্বাগত জানান। কোভিডকে সামনে রেখে ক্ষুদ্র আমানতকারীদের খরচ কমানোর উদ্যোগের উদ্দেশ্য মহৎ।

কিন্তু তারা বলেন, যাদের ব্যাংক হিসাবে গড়ে বছরে ২৫ হাজার টাকা থেকে ১০ লাখ টাকা আছে তাদেরকে বছরে ২০০ থেকে ৬০০ টাকা ফি দিতে হয়। যাদের লাখ টাকা বা তার বেশি আমানত থাকে তাদের ক্ষেত্রে এই ফি খুব বেশি নয়।

ব্যাংকাররা বলেন, চলতি বছর কোডিভের কারণে খেলাপি ঋণ না বাড়ায় ব্যাংকগুলোর প্রভিশন কম রাখতে হয়েছে, এর ফলে ব্যাংকগুলোর অপারেটিং প্রফিট (পরিচালন মুনাফা) ভালো হয়েছে। এই দিক বিবেচনায় নিয়ে হয়তো কেন্দ্রীয় ব্যাংক চিন্তা করেছে অ্যাকাউন্ট পরিচালনা ফি কমানো যেতে পারে।

তারা বলছেন, একজন গ্রাহকের ক্ষেত্রে হয়তো খরচ অর্ধেক কমলো, কিন্তু ১০ লাখ টাকা বা তার নীচে থাকা লাখ লাখ অ্যাকাউন্টের কথা চিন্তা করলে দেখা যাবে একাউন্ট পরিচালনা ফি অর্ধেক করায় ব্যাংকগুলোর আয় কিছুটা হলেও কমবে।

বর্তমানে সঞ্চয়ী হিসাবের ক্ষেত্রে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত কোন অ্যাকাউন্ট মেইনটেনেন্স ফি নেয়া যায় না। ১০ হাজার থেকে ১০ লাখ বা তার উপর পর্যন্ত বিভিন্ন হারে ফি কাটা হয়ে থাকে। আর চলতি হিসাবের ক্ষেত্রে বছরে ৬শ’ হারে টাকা ফি কাটা হয়।

  • 57
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে