রাজশাহীতে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় জেলে ব্যাংক কর্মকর্তা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৮, ২০২২; সময়: ৯:২৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে স্ত্রীকে নির্যাতনের মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ শাখার সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার এসএম মশিউর রহমানকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করে মশিউর রহমান। শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মনসুর আলম জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে আদালতের নির্দেশে তাকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

রাজশাহী কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক আবুল হাশেম জানান, মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ ছিল। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে রাজশাহীর সোনালী ব্যাংকের কাদিরগঞ্জ গ্রেটার রোড শাখার সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার ও নির্যাতনের শিকার তাসমীন এহসান এ মামলা দায়ের করেন।

এর আগে গত বছরের ৩ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে এই ব্যাংক কর্মকর্তা মশিউর রহমান বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের অভিযোগ করেন তার স্ত্রী। একইসঙ্গে অভিযুক্ত যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন বলে জানানো হয়।

তাসমীন এহসান জানান, তার সাবেক স্বামী ২০২০ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে তাকে বেদম মারধর করেন। কাপড় আইরন করা ইস্ত্রি দিয়ে তার হাত পুড়িয়ে দেন। এরপর দুই দিন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি থেকে চিকিৎসা নেন। এ ঘটনার পর থেকে তার সাবেক স্বামী তাকে হুমকি দিয়ে আসছিলেন।

নির্যাতনের শিকার তাসমীন আরও জানান, তিনি মহানগরীর তেরোখাদিয়া এলাকার একটি বাড়িতে থাকেন। বাড়িটি বিক্রি করে দেওয়া হবে বলে মশিউর রহমান লোক পাঠান। আর তিনি তালাক দেওয়ার আগেই এক সেনা কর্মকর্তার সাবেক স্ত্রীকে বিয়ে করেন। তার বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি অগ্রণী ব্যাংক কর্তৃপক্ষকেও জানানো হয়। কিন্তু ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলে উল্লেখ করেন তাসনীম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে