নাটোর ও পাবনার ৯ উপজেলায় পুকুর খনন বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

প্রকাশিত: মে ১২, ২০১৯; সময়: ১০:২৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : নাটোর ও পাবনা জেলার নয় উপজেলা কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছেন। এর মধ্যে নাটোর জেলায় পাঁচটি ও পাবনা জেলায় চারটি উপজেলা রয়েছে। রোববার একটি রিট পিটিশনের শুনানি শেষে হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী জালাল উদ্দিন উজ্জল।

তিনি জানান, কৃষি জমির প্রকৃতগত পরিবর্তন করে মৎস চাষের নামে দীর্ঘ দিন ধরে আবাদি কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন অব্যাহত থাকায় “ল’ইয়ার্স সোসাইটি ফর ল” নামক একটি মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন ইতিপূর্বে রাজশাহী জেলার বাগমারা, দূর্গাপুর, পুঠিয়া, পবা, গোদাগাড়ী ও মোহনপুর উপজেলায় অবস্থিত আবাদি কৃষি জমি রক্ষার্থে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে জনস্বার্থে ৪৩৫৩/২০১৭, ১৮০১/২০১৯ ও ২৪৭৬/২০১৯ নং রীট পিটিশন দায়ের করায় হাইকোর্ট বিভাগ সংশ্লিষ্ট বিবাদীগণের প্রতি রুল নীশি জারী করতঃ বাগমারা উপজেলায় কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন এবং দূর্গাপুর পুঠিয়া, পবা, গোদাগাড়ী এবং মোহনপুর উপজেলায় অবস্থিত আবাদি কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আদালতের উক্ত আদেশ যথারীতি বলবৎ ও কার্যকর রয়েছে।

একইভাবে রাজশাহীর পাশ্ববর্তী নটোর ও পাবনা জেলাতে অবস্থিত আবাদি কৃষি জমি নষ্ট করে ব্যাপকভাবে অবৈধ পুকুর খনন অব্যাহত থাকার বিষয়ে স্থানীয় জাতীয় দৈনিক পত্র-পত্রিকায় সংবাদ পরিবেশন হলে, বিষয়টি ল’ইয়ার্স সোসাইটি ফর ল এর দৃষ্টিবন্দি হওয়ায়, নাটোর সদর, নলডাঙ্গা, সিংড়া, গুরুদাসপুর ও বাগাতীপাড়া উপজেলা এবং পাবনা জেলার পাবনা সদর, ঈশ্বরদী, সুজানগর ও আটগড়িয়া উপজেলায় অবস্থিত আবাদি কৃষি জমি রক্ষার্থে হাইকোর্ট বিভাগে জনস্বার্থে ৫৩২৭/২০১৯ নং একটি রীটপিটিশন দায়ের করেন। রোববার শুনানীনান্তে হাইকোর্ট বিভাগ নাটোর সদর, নলডাঙ্গা, সিংড়া, গুরুদাসপুর ও বাগাতীপাড়া উপজেলা এবং পাবনা সদর, ঈশ্বরদী, সুজানগর ও আটগড়িয়া উপজেলায় অবস্থিত আবাদি কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ নিতে বিবাদীগণের নিস্ক্রীয়তা কেন অবৈধ ঘোষনা করা হবে না মর্মে সংশ্লিষ্ট বিবাদীগণের প্রতি রুল নীশি জারী করতঃ উক্ত উপজেলাতে অবস্থিত কৃষি জমিতে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

আদালতের উক্ত আদেেেশর বিষয়টি ল’ইয়ার্স সোসাইটি ফর ল এর পক্ষে তাৎক্ষনিকভাবে জেলা প্রশাসক নাটোরসহ সংশ্লিষ্ট বিবাদীগণদের মোবাইল ফোনে অবহিত করা হয়েছে বলে আইনজীবি জালাল উদ্দিন উজ্জল জানিয়েছেন। ল’ইয়ার্স সোসাইটি ফর ল এর পক্ষে রীটি পিটিশন দায়ের ও পরিচালনা করেন উক্ত সোসাইটির মহাসচিব এডভোকেট মেজবাহুল ইসলাম আসিফ এবং তাকে এই বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি জালাল উদ্দিন উজ্জল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে